অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীকে গলা টিপে হত্যা করেছে স্বামী

কিশোরগঞ্জের অষ্টগ্রাম উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মানিক কুমার দেবের বিরুদ্ধে চার মাসের অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীকে পিটিয়ে ও গলা টিপে হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে। শুক্রবার রাতে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা সদর হাসপাতালে নেওয়ার পথে ওই নারীর মৃত্যু হয়। নিহতের নাম লিপি নারী দেব। তিনি ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগর উপজেলার দত্তপাড়া এলাকার তুলসি রঞ্জন দেবের মেয়ে।

নিহতের পরিবারের অভিযোগ, প্রায় ১২বছর আগে অষ্টগ্রামের দুর্গামোহন দেবের ছেলে মানিক চন্দ্র দেবের সঙ্গে পারিবারিকভাবে লিপির বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকেই পারিবারিক কলহের জের ধরে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে কথা কাটাকাটি ও ঝগড়া হতো। শুক্রবার বিকেলে স্বামীর বাড়ি অষ্টগ্রাম উপজেলার অষ্টগ্রামে বাড়ির রাস্তা নিয়ে স্বামী-বোনদের সঙ্গে লিপির ঝগড়া হয়। এসময় স্বামী মানিক স্ত্রীর বিরুদ্ধে গিয়ে বোনদের পক্ষ নেয়। এক পর্যায়ে মানিক ঘরে স্ত্রীকে মারধর করে হত্যা করে। পরে তাঁকে অষ্টগ্রাম থেকে স্পীডবোর্ডে করে এক প্রতিবেশীর মাধ্যমে নাসিরনগর পাঠিয়ে দেয়। পরে লিপিকে জেলা সদর হাসপাতালে নিয়ে আসলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষনা করেন।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা সদর হাসপাতালের জরুরী বিভাগের দায়িত্বে থাকা আবাসিক চিকিৎসক আজহারুর রহমান বলেন, হাসপাতালের আনার আগেই ওই নারী মৃত্যু হয়েছে। ময়নাতদন্তের প্রতিবেদনের পর মৃত্যুর প্রকৃত কারণ বলা যাবে।

নিউজ ডেস্ক / বিজয় টিভি