অর্থের অভাবে চিকিৎসা সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে মেধাবী শির্ক্ষাথী সঞ্জয় কুমার রায়

জামালপুরের সরিষবাড়ী উপজেলার পৌরসভার আশ্রয়ণ প্রকল্পের ব্যারাক হাউজের স্থায়ী বসবাসকারী ও প্রকল্পের বহুমূখী সমবায় সমিতি’র সভাপতি নারায়ণ চন্দ্র রায়ের দুই ছেলে মেয়ের মধ্যে একমাত্র ছেলে সঞ্জয় কুমার রায়।

এইচ.এস.সি পরীক্ষা দেওয়ার আগে হঠাৎ করে স্ট্রোক করে প্যারালাইজড় ও ব্রেন টিবি রোগে আক্রান্ত হয়। চিকিৎসা করতে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে র্দীঘ ২ মাস চিকিৎসা হওয়ার পরও অবস্থার কোন পরর্বিতন না হলে পরে ভাল চিকিৎসার জন্য ভারতের ভেলুর সি.এম.সি তামিল নাডু হাসপাতালে প্রায় ৪ মাস চিকিৎসা গ্রহনে প্রায় ১২ লক্ষাধকি টাকা ব্যয় হয়।

অত্যন্ত অসহায় ও নিরুপায় সহায় সম্বলহীন ও নিত্যান্তই গরীব হওয়ায় ১০ মাস র্পূবে পুনরায় ভারতের ভেলুর হাসপাতালে যাওয়ার কথা থাকলেও অর্থের অভাবে এখনও সম্ভব হচ্ছে না পরবিারের। সঞ্জয় কুমার রায়ের চিকিৎসার জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর বরাবর হস্তক্ষেপ কামনা করছে তার পরবিার।

নিরুপায় পরিবারটি তার ছেলের উন্নত চিকিৎসায় সুস্থ্য ও পড়া লেখা করে দেশের দশের একজন হওয়ার সাহায্য সহযোগীতা প্রার্থনা করছেন প্রধানমন্ত্রীর নিকট।

নিউজ ডেস্ক / বিজয় টিভি