আজ বিজিবি দিবস

৫৮

আজ ২০ ডিসেম্বর বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) দিবস। সারাদেশে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) দিবস-২০২০ উদযাপিত হবে। দিবসটি উপলক্ষে বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে।

এর অংশ হিসেবে সকাল ৯ টায় মহাপরিচালক মেজর জেনারেল মো. সাফিনুল ইসলাম পিলখানা সদর দপ্তরে বিজিবির রেজিমেন্টাল পতাকা উত্তোলন করেন। এছাড়াও পিলখানায় ‘সীমান্ত গৌরব’-এ মুক্তিযুদ্ধে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে পুস্পস্তবক অর্পণ করেন তিনি।

দিবস উপলক্ষে মহাপরিচালকের বিশেষ দরবার অনুষ্ঠিত হবে। করোনাভাইরাস সংক্রমণ জনিত স্বাস্থ্য ঝুঁকি বিবেচনায় ভার্চুয়াল পদ্ধতিতে বিজিবি দিবস-২০২০ এর বিশেষ দরবার অনুষ্ঠিত হচ্ছে। যেখানে বাংলাদেশের সকল প্রান্ত হতে বিজিবি সদস্যরা যুক্ত থাকছেন। দরবার শেষে কৃতিত্বপূর্ণ কাজের জন্য পুরস্কার প্রদান করা হবে।

এদিকে বিজিবি দিবস উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রী ও রাষ্ট্রপতি পৃথক বাণী দিয়েছেন।

রাষ্ট্রপতি মোঃ আবদুল হামিদ তার বাণীতে বলেছেন-দেশের সীমান্তরক্ষা, চোরাচালানপ্রতিরোধ, নারী-শিশু এবং মাদকপাচার প্রতিরোধে সীমান্তে নিরবচ্ছিন্ন দায়িত্ব পালন করে যাচ্ছে বিজিবি। দুর্যোগকালীন উদ্ধারকার্যক্রম পরিচালনা ও জনগণের জানমালের নিরাপত্তাবিধানেও বিজিবি প্রশংসনীয় ভূমিকা রাখছে। বিজিবিকে একটি আধুনিক সীমান্তরক্ষীবাহিনী হিসেবে গড়ে তুলতে সরকার প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে।

প্রধানমন্ত্রী মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তার বাণীতে বলেছেন- জাতির পিতার পদাঙ্ক অনুসরণ করে আওয়ামী লীগ সরকার ২০০৯ সাল থেকে এই বাহিনীকে যুগোপযোগী সীমান্তরক্ষী বাহিনী হিসেবে গড়ে তোলার কাজ শুরু করে। এ লক্ষ্যে ‘বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ আইন-২০১০’ পাশসহ বহুবিধ পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়। একুশ শতকের চ্যালেঞ্জমোকাবিলায় বিজিবিকে একটি বিশ্বমানের আধুনিক ত্রিমাত্রিক সীমান্তরক্ষী বাহিনী হিসেবে গড়ে তোলার লক্ষ্যে ‘বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ ভিশন-২০৪১’ এর পরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়েছে।

এছাড়াও শ্রেষ্ঠ কোম্পানি ও বিওপি কমান্ডারদের পুরস্কার প্রদান এবং মহাপরিচালকের অপারেশনাল ও প্রশাসনিক ইনসিগনিয়াসহ প্রশংসাপত্র প্রদান করা হবে। বিজিবি দিবস উদযাপন উপলক্ষে পিলখানায় সকল ইউনিটে কেক কাটা ও প্রীতিভোজের আয়োজন করা হবে। মাগরিবের নামাজের পর পিলখানায় সকল মসজিদে স্বাস্থ্যবিধি মেনে সীমিত আকারে মিলাদ ও বিশেষ দোয়া করা হবে।

ডেস্ক নিউজ/বিজয় টিভি

You might also like