আজ বিশ্ব হার্ট দিবস

আজ (২৯ সেপ্টেম্বর) বিশ্বজুড়ে পালিত হচ্ছে বিশ্ব হার্ট দিবস। বিশ্বজুড়ে হৃদরোগ বিষয়ে জনসচেতনতা বৃদ্ধির জন্য দিবসটি পালিত হয়ে থাকে। বাংলাদেশও ২০০০ সাল থেকে দিবসটি যথাযথ মর্যাদায় পালিত হচ্ছে। এবারও বিভিন্ন কর্মসূচির মধ্য দিয়ে দিনটি বাংলাদেশেও উদযাপন করা হচ্ছে। এবার দিবসটির প্রতিপাদ্য- ‘হৃদয় দিয়ে হৃদয়ের যত্ন নিন’। দিবসটি উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি মোঃ আবদুল হামিদ ও মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পৃথক বাণী দিয়েছেন।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের কার্ডিওলজি বিভাগের প্রধান অধ্যাপক ডা. আব্দুল ওয়াদুদ চৌধুরী গণমাধ্যমকে বলেছেন, যারা দীর্ঘদিন ধরে উচ্চ রক্তচাপ ও হৃদরোগে ভুগছেন, তাদের জন্য কোভিড-১৯ মারাত্মক ঝুঁকিপূর্ণ। বিশেষ করে ৫০ বছরের বেশি বয়সীদের মধ্যে হৃদরোগজনিত সমস্যা থাকলে, করোনায় আক্রান্ত হলে তার মৃত্যুঝুঁকি অনেক বেশি। এদের মধ্যে যারা ধূমপান, অ্যালকোহল ও চর্বি জাতীয় খাবার গ্রহণ করেন, করোনায় আক্রান্ত হলে তাদের মৃত্যুঝুঁকি অন্যদের তুলনায় বহুগুণ বেড়ে যায়। সুতরাং সতর্কতা অবলম্বনের বিকল্প নেই।

সারা বিশ্বে হৃদরোগের কারণে বছরে প্রায় এক কোটি ৭০ লাখ লোক মারা যায়। বাংলাদেশে হৃদরোগে আক্রান্তের সংখ্যা দিন দিন বেড়ে চলেছে। তবে সবচেয়ে আশঙ্কার ব্যাপার হলো হৃদরোগে আক্রান্ত হচ্ছে কম বয়সী তরুণ-তরুণীরাও। গবেষণা বলছে- বাংলাদেশে প্রতি ৫ জন তরুণের মধ্যে ১ জন হৃদরোগ ঝুঁকির মধ্যে রয়েছে। ক্ষতিকর চর্বিজাতীয় খাবার, কোল্ড ড্রিংকস, তামাক ও নেশাজাতীয় দ্রব্য সেবনকেই কারণ হিসেবে দেখছেন বিশেষজ্ঞরা। পাশাপাশি বিষয়টিকে খুবই উদ্বেগজনক বলেও মনে করছেন তারা।