আত্মহত্যা করেছিলেন ম্যারাডোনা!

১৬১

মৃত্যুর পর প্রায় একমাস হতে চললো দিয়েগো ম্যারাডোনার। কিন্তু এখনও তার মৃত্যু নিয়ে বিতর্ক শেষ হয়নি। আর্জেন্টাইন কিংবদন্তি ফুটবলার দিয়োগো ম্যারাডোনার মৃত্যু নিয়ে এখনও নানা রহস্য বেরিয়ে আসছে।

২৫ নভেম্বর হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু বরণ করেছিলেন দিয়েগো ম্যারাডোনা। ফুটবল রাজপুত্রের মৃত্যু নিয়ে নতুন তত্ব হাজির করেছেন তার এক চিকিৎসক। সেই চিকিৎসক জানান, ম্যারাডোনার স্বাভাবিক মৃত্যু হয়নি, বরং তিনি আত্মহত্যা করেছেন!

আলফ্রেডো দীর্ঘদিন ম্যারাডোনার চিকিৎসক হিসেবে নিয়োজিত ছিলেন। ১৯৭৭ থেকে ২০০৭ পর্যন্ত বিশ্বকাপজয়ী এই ফুটবলারের চিকিৎসক ছিলেন তিনি।

১৯৭৭ থেকে ২০০৭ পর্যন্ত ১৯৮৬ বিশ্বকাপজয়ী এই ফুটবলারের চিকিৎসক ছিলেন আলফ্রেডো। এক সাক্ষাৎকারে তিনি দাবি করেন, ‘দিয়েগোর হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু এক ধরনের আত্মহত্যা ছিল। মস্তিষ্কে অস্ত্রোপচারের পর থেকে দিয়েগো মানসিক অবসাদে ভুগছিল। সে নাকি ঠিক মতো খাওয়া-দাওয়া করতো না। ওষুধ খেতে চাইত না। ঘরবন্দি হয়ে থাকত। কারও সঙ্গে দেখা করত না। দিয়েগোর মৃত্যুর কয়েকদিন আগেই ওর সাবেক বান্ধবী ভেরোনিকার সঙ্গে কথা হয়েছিল। শুনলাম দিয়েগো নাকি ভেরোনিকাকে বারবার বলত সে আর বাঁচতে চায় না। আমার কাছে দিয়েগোর মৃত্যু তাই আত্মহত্যাই।’