আর্জেন্টিনার স্কোয়াডে আছেন দিবালা

চোটের কারণে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ম্যাচে খেলতে পারছেন জুভেন্টাসের আর্জেন্টাইন তারকা পাওলো দিবালা। এমনকি এরপর লিগ ম্যাচেও অনিশ্চিত। তা সত্ত্বেও তাকে আর্জেন্টিনার স্কোয়াডে রেখেছেন আর্জেন্টাইন কোচ লিওনেল স্কালোনি।

কাতার বিশ্বকাপ বাছাই পর্বের জন্য সোমবার ৩০ সদস্যের দল ঘোষণা করেছে আর্জেন্টিনা। দলে খুব বেশি পরিবর্তন নেই। তবে চোট কাটিয়ে ফিরেছেন এস্তেবান আন্দ্রাদা। ফিরেছেন লুকাস আলারিও-ও। জায়গা ধরে রেখেছেন রিভার প্লেটের তরুণ ফরোয়ার্ড হুলিয়ান আলভারেস।

আগামী ৭ অক্টোবর প্যারাগুয়ের বিপক্ষে খেলবে আর্জেন্টিনা। এর তিন দিন পর উরুগুয়ের মুখোমুখি হবে দুইবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা। ১৪ অক্টোবরের ম্যাচে তাদের প্রতিপক্ষ পেরু।

অবশ্য কিছুদিন আগে ব্রাজিলের বিপক্ষে প্রিমিয়ার লিগের চার ফুটবলার এমিলিয়ানো বুয়েন্দিয়া, এমিলিয়ানো মার্তিনেস, জিওভানি লো সেলসো ও ক্রিস্তিয়ান রোমেরোকে নিয়ে আর্জেন্টিনা দল সাজানোয় দেশটির মাঠে তাদের ম্যাচ সেখানকার স্থানীয় স্বাস্থা বিভাগের দ্বারা স্থগিত করে দেওয়া হয়। সেই চারজনের মধ্যে এবার এমিলিয়ানো বুয়েন্দিয়া ছাড়া বাকি তিন জন জায়গা ধরে রেখেছেন।

কনমেবল অঞ্চলে ৮ ম্যাচে ১৮ পয়েন্ট নিয়ে বাছাইয়ে দুই নম্বরে রয়েছে আর্জেন্টিনা। সমান ম্যাচে ২৪ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে ব্রাজিল।

আর্জেন্টিনা দল:

গোলরক্ষক: ফ্রাঙ্কো আরমানি (রিভার প্লেট) এমিলিয়ানো মার্তিনেস (অ্যাস্টন ভিলা), হুয়ান মুস্সো (আতালান্তা), এস্তেবান আন্দ্রাদা (মন্তেরি)।

ডিফেন্ডার: গনসালো মনতিয়েল (সেভিয়া), নাউয়েল মোলিনা (উদিনেজে), হুয়ান ফয়েথ (ভিয়ারিয়াল), লুকাস মার্তিনেস কুয়ার্তা (ফিওরেন্তিনা), হেরমান পেস্সেইয়া (রিয়াল বেতিস), নিকোলাস ওতামেন্দি (বেনফিকা), ক্রিস্তিয়ান রোমেরো (টটেনহ্যাম হটস্পার), লিসান্দ্রো মার্তিনেস (আয়াক্স), নিকোলাস তাগলিয়াফিকো (আয়াক্স)।

মিডফিল্ডার: মার্কোস আকুনা (সেভিয়া), লেয়ান্দ্রো পারেদেস (পিএসজি), গিদো রদ্রিগেস (রিয়াল বেতিস), নিকোলাস দোমিনগেস (বোলোনিয়া), রদ্রিগো দে পল (আতলেতিকো মাদ্রিদ), এসেকিয়েল পালাসিওস (বায়ার লেভারকুজেন), জিওভানি লো সেলসো (টটেনহ্যাম হটস্পার), আলেহান্দ্রো গোমেস (সেভিয়া), আনহেল দি মারিয়া (পিএসজি)।

ফরোয়ার্ড: লিওনেল মেসি (পিএসজি), নিকোলাস গনসালেস (ফিওরেন্তিনা), হোয়াকিন কোররেয়া (লাৎসিও), লাউতারো মার্তিনেস (ইন্টার মিলান), আনহেল কোররেয়া (আতলেতিকো মাদ্রিদ), লুকাস আলারিও (বায়ার লেভারকুজেন), পাওলো দিবালা (জুভেন্টাস), হুলিয়ান আলভারেস (রিভার প্লেট)।

You might also like