ইংলিশদের উড়িয়ে অ্যাশেজে অস্ট্রেলিয়ার দুর্দান্ত শুরু

অ্যাশেজের প্রথম টেস্টে প্রতিদ্বন্দ্বী ইংল্যান্ডকে এক প্রকার তুড়ি মেরে উড়িয়ে দিয়েছে অস্ট্রেলিয়া। ব্রিসবেনে শনিবার (১১ ডিসেম্বর) চতুর্থ দিন দ্বিতীয় সেশনের শুরুতে ৯ উইকেটের বড় জয়ে দুর্দান্ত শুরু করেছে প্যাট কামিন্সের দল।

অথচ প্রথম ইনিংসে বিপর্যয়ের পর তৃতীয় দ্বিতীয় ইনিংসে জো রুট-ডেবিড মালানের অপ্রতিরোধ্য জুটি আশা দেখিয়েছিল লড়াইয়ের। ৬১ রানে ২ উইকেট হারানোর পর ক্রিজে জুটিবদ্ধ হন রুট ও মালান। ৪৯ ওভার একসঙ্গে পাড়ি দিয়ে যোগ করেছেন ১৫৯ রান। রুট ৮৬ রানে আর মালান ৮০ রানে অপরাজিত ছিলেন। দুজনেই ১০টি করে চার হাঁকান। অজিদের কোন বোলাররই তাদের মনোসংযোগে ছেদ ঘটাতে পারেনি।

চতুর্থ দিন যেখানে আলো ছড়ানোর কথা ছিল রুট-মালানের সেখানে ছিল শুধু হতাশার গল্প। দিনের শুরুতেই ফেরেন আগের দিনের হার না মানা দুই নায়ক। ৮২ রানে ফেরেন মালান আর ৮৯ রানে ফেরেন ইংলিশ অধিনায়ক। কারোই পাওয়া হলো না কাঙ্ক্ষিত সেঞ্চুরি। ইংলিশদের ইনিংসও বেশিদূর এগোয়নি। ম্যাচের হাল ধরতে পারেননি জস বাটলার (২৩), বেন স্টোকসরা (১৪)।

নাথান লিওনের ঘূর্ণি জাদুতে ২৯৭ রানে থামে ইংল্যান্ডের দ্বিতীয় ইনিংস। ৩৪ ওভারে ৯১ রান দিয়ে লিওন একাই নেন ৪ উইকেট। দুটি করে উইকেট নেন প্যাট কামিন্স ও ক্যামেরন গ্রিন। অস্ট্রেলিয়ার সামনে লক্ষ্য দাঁড়ায় মাত্র ২০ রানের। যা করতে গিয়ে একটি উইকেট হারিয়েছে স্বাগতিকরা।

ওপেনিং নামেন অ্যালেক্স ক্যারি ও মার্কুস হ্যারিস। দুজনে জয়ের পথেই এগোচ্ছিল। দলীয় ১৬ রানে রবিনসনের বলে উইকেটরক্ষক বাটলারের হাতে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন কারে। ৯ রান আউট হন তিনি। ক্যারির আউটের পরের বলেই অবশ্য জিতে যায় অজিরা। উডের বলে পয়েন্ট বাউন্ডারির বাইরে পাঠিয়ে জয় নিশ্চিত করেন হ্যারিস। ৯ রান অপরাজিত ছিলেন তিনি। নতুন ব্যাটসম্যান মার্নাস লাবুশানেকে কোনো বলই খেলতে হয়নি।

ইংল্যান্ড অবশ্য প্রথম ইনিংসেই পিছিয়ে পড়ে। কামিন্সের আগুণঝরা বোলিংয়ে মাত্র ১৪৭ রানে অলআউট হয় সফরকারীরা। সেই ধাক্কা আর সামলে উঠতে পারেনি। স্বাগতিকরা প্রথম ইনিংসে ব্যাটিং করতে নেমে রানের পাহাড় গড়ে ট্রাভিস হেডের অনবদ্য ১৫২ রানে। এ ছাড়া ডেবিড ওয়ার্নার করেছিলেন ৯৪ রান। ৪২৫ রান করে থামে তারা। ২৭৮ রানে পিছিয়ে থেকে ব্যাটিং করতে নেমে ২৯৭ রানের বেশি করতে পারেনি রুটের দল। অজিদের সামনে লক্ষ্য দাঁড়িয়েছিল মাত্র ২০ রানের।

দুর্দান্ত সেঞ্চুরির জন্য ম্যাচসেরার পুরষ্কার ওঠে হেডের হাতে। তার ব্যাটেই অস্ট্রেলিয়া পেয়েছিল জয়ের ভিত। এই জয়ে ৫ ম্যাচের ঐতিহাসিক অ্যাশেজে ১-০তে এগিয়ে গেল ক্যাঙ্গারুরা। সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচটি দিবারাত্রির। শুরু হবে ১৬ ডিসেম্বর সকাল ১০টা থেকে অ্যাডিলেডে।

You might also like