একসঙ্গে ছিলাম বলে করোনা-কালেও নতুন ছবিতে চুমু খাওয়া সহজ হবে ঐন্দ্রিলাকে : অঙ্কুশ

রিল লাইফের অঙ্কুশ-ঐন্দ্রিলা এ বার বড় পর্দায় রাজা চন্দের ছবিতে। সোমবার হয়ে গেল ছবির মহরত। এই অতিমারির কালে মহরত থেকে ঐন্দ্রিলা বললেন, ‘‘মহরতের পুজো দেখে সরস্বতী পুজোর কথা মনে হচ্ছে। মাস্ক পরেও আজ অনেক দিন পরে সেজেছি। লিপস্টিকগুলো তো কান্নাকাটি করছিল। মাকেও নিয়ে এসেছি। করোনাও থাকবে আর সাবধানতা মেনে কাজও করতে হবে। আর কত দিন? এ বার তো বাড়ি বসে ডিপ্রেশন হয়ে যাবে!’’

টেলিফোনের ও পার থেকে শোনা যাচ্ছিল পুজোর মন্ত্র। সেখানে দাঁড়িয়ে অঙ্কুশ বললেন, ‘‘অনেক আগেই এই ছবির কাজ শুরু করার কথা ছিল। সেপ্টেম্বরে হলে আসবে ভেবেছিলাম। যাই হোক, সব রকম সুরক্ষার কথা মাথায় রেখেই শুট হবে।’’

রোম্যান্টিক থ্রিলার এই করোনাকালে কেমন করে শুট হবে? এই প্রশ্নের চটপট উত্তর দিলেন অঙ্কুশ, ‘‘লকডাউন থেকেই আমি আর ঐন্দ্রিলা একসঙ্গে।

এই ছবিতে নায়ক-নায়িকা আলাদা হলে সংক্রমণের কথা ভেবে ইন্টিমেট সিন করতে সত্যি অসুবিধে হত। আমি আর ঐন্দ্রিলা আমাদের নতুন ছবিতে সহজেই দু’জনকে চুমু খেতে পারব।’’ ঐন্দ্রিলার গলাতেও সেই রোমাঞ্চের সুর। তিনি বললেন, ‘‘ন’বছর ধরে বিক্রম ছাড়া আর কোনও হিরো জোটেনি আমার। উফ্ফ্, এ বার অঙ্কুশের সঙ্গে কাজ। অনেক দিনের ইচ্ছে! আমরা ছবিতে একে অন্যকে অনায়সে জড়িয়ে ধরতে পারব। আমাদের জীবনের কেমিস্ট্রি ছবিতে কাজ করবে।’’(সুত্র: আনন্দবাজার পত্রিকা)