এক নজরে নবনির্বাচিত মেয়র রেজাউল করিম চৌধুরী

৩২

বেসরকারিভাবে নির্বাচিত চট্টগ্রাম সিটি মেয়র রেজাউল করিম চৌধুরী ১৯৫৩ সালের ৩১ মে বর্তমান চান্দগাঁও থানার ৬ নং পূর্ব ষোলশহর ওয়ার্ডের ঐতিহ্যবাহী ও প্রাচীন জমিদার বংশ বহরদার পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন।

রেজাউল করিম চৌধুরীর পিতা মরহুম হারুন-অর-রসিদ চৌধুরী ছিলেন একজন উচ্চ পদস্থ সরকারি কর্মকর্তা এবং দাদা মরহুম ছালেহ আহমদ ছিলেন ইংরেজশাসিত ভারত এবং পাকিস্তান আমলে চট্টগ্রামের একজন খ্যাতিমান আইনজীবী ও চট্টগ্রামে বৃটিশ আমলে প্রতিষ্ঠিত বিলুপ্ত কমরেড ব্যাংকের অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা। পরিবারের বড় ভাই অধ্যাপক সুলতানুল আলম চৌধুরী ১৯৫৪ সালের যুক্তফ্রন্ট নির্বাচনে প্রাদেশিক পরিষদের সদস্য নির্বাচিত হয়েছিলেন।

রেজাউল করিম চৌধুরীর শিক্ষাজীবন শুরু হয় চান্দগাঁও থানা এলাকার পূর্ব ষোলশহর প্রাথমিক বিদ্যালয়ে। এখান থেকে তিনি পঞ্চম শ্রেণী পাস করে মুসলিম হাইস্কুল থেকে এসএসসি এবং চট্টগ্রাম কলেজ থেকে এইচএসসি পাস করেন। এরপর চট্টগ্রাম বিশ^বিদ্যালয় থেকে স্নাতক ডিগ্রি অর্জন করে আইন বিষয়ে পড়ার জন্য ভর্তি হন। কিন্তু জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের হত্যাকাণ্ডের পর সামরিক দুঃশাসনের বিরুদ্ধে সক্রিয় প্রতিরোধ লড়াইয়ে নেমে ফাইনাল পরীক্ষা দিতে পারেননি। ব্যক্তিগত জীবনে স্ত্রী সেলিনা আক্তার, দুই কন্যা এবং এক পুত্র সন্তানের জনক এম রেজাউল করিম চৌধুরী।

তিনি ১৯৬৭ সালে পূর্ব পাকিস্তান ছাত্রলীগে যোগ দেন। ১৯৬৯-৭০ সালে চট্টগ্রাম কলেজ ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ছিলেন। ১৯৭১ সালে মহান মুক্তিযুদ্ধে যোগ দেন। ১৯৭২ থেকে ’৭৬ পর্যন্ত চট্টগ্রাম কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি, ১৯৭৬ থেকে ৭৮ সাল পর্যন্ত উত্তর জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক, ১৯৯৭ থেকে ২০০৬ সাল পর্যন্ত চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক, ২০০৬ থেকে ’১৪ সাল পর্যন্ত মহানগর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ছিলেন। বর্তমানে তিনি মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক। (বাসস)