করোনার ভয়ে বিষ পান, মা-ছেলের মৃত্যু

করোনাভাইরাসের ভয়ে পরিবারের পাঁচ সদস্যের সবাই বিষ পান করে আত্মহত্যার চেষ্টা করার ঘটনা ঘটেছে। পরে অই পরিবারের ৩ জনকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে বাঁচানো গেলেও এ ঘটনায় মা ও তার তিন বছরের এক ছেলের মৃত্যু হয়েছে।

অদ্ভুত এ ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের তামিলনাড়ুর মাদুরাইতে। ভারতের সংবাদ মাধ্যম খবর নিউজ এইটিন বিষয়টি নিশ্চিত করেছে।

খবরে বলা হয়, করোনাভাইরাসের ভয়ে পরিবারের মোট ৫ জন বিষ খেয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন ৷ আর তামিলনাড়ু পুলিশের বক্তব্য অনুযায়ী এতে পরিবারেটির ৩ জনের প্রাণ বাঁচানো গেলেও ২ জনকে বাঁচানো যায়নি। নিহত ওই নারীর নাম জ্যোতিকা।

গেল ডিসেম্বর জ্যোতিকার বাবার মৃত্যু হয়। এর ফলে পরিবারের আর্থিক চাপে ছিল তারা। জ্যোতিকা গত ৮ জানুয়ারি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছিলেন৷ আর এই খবর জ্যোতিকা তার মাকে দিয়েছিলেন। তাতে পুরো পরিবারে আতঙ্ক তৈরি হয়। এরপরেই পুরো পরিবার  বিষ পান করে।

এদিকে অই পরিবারের প্রতিবেশীরা বিষয়টি জানতে পেরে তামিলনাড়ু পুলিশকে জানান। পুলিশ তাড়াতাড়ি পরিবারের সব সদস্যকে হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানে কর্ত্যবরত চিকিৎসক জ্যোতিকা ও তার ছেলেকে মৃত ঘোষনা করে।

এ ঘটনার  পর তামিলনাড়ু স্বাস্থ্য বিভাগ সাধারণ লোকদের জন্য একটি বিজ্ঞপ্তি জারি করেছে। অই বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, করোনা সংক্রমণ নিয়ে সচেতনতা বিষয়ে সাধারণ মানুষ যেনো ঘাবড়ে না যান। কেউ যাতে কোনো অনুচিত পদক্ষেপ না নেন।

You might also like