কুয়াকাটা সৈকত রক্ষায় মানববন্ধন ও স্মারকলিপি প্রদান

বৈশ্বিক উঞ্চয়নের ফলে জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে বাংলাদেশের দ্বিতীয় বৃহৎ পর্যটনের কেন্দ্র কুয়াকাটা সৈকত মারাত্মক ভাঙনের কবলে পতিত হয়েছে।

যার ফলে সৈকত সহ পরিবেশ প্রতিবেশ, জীববৈচিত্র, রাখাইন সংস্কৃতি বিলুপ্ত হওয়ার উপক্রম হয়েছে। ভৌগলিক কারণে কুয়াকাটা পর্যটন কেন্দ্র অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বিশেষ করে পায়রা বন্দর ও তাপ বিদুৎ কেন্দ্রের জন্য এর গুরুত্ব অপরিসীম।

তাই কুয়াকাটা পর্যটন কেন্দ্র রক্ষা করার দাবীতে ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ (টিআইবি) এর অনুপ্রেরণায় গঠিত সচেতন নাগরিক কমিটি (সনাক) সহ সমমনা বেসরকারি প্রতিষ্ঠান সমূহ এর উদ্যোগে পৌরসভার সামনে বুধবার সকাল ১০ টায় মানববন্ধন ও গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টি আর্কষণের জন্য জেলা প্রশাসক, পটুয়াখালী’র মাধ্যেমে স্মারক লিপি প্রদান করা হয়। মানববন্ধনে পটুয়াখালী’র বিভিন্ন শেণিপেশার প্রায় ৩০০ জন অংশগ্রহণ করে।

মানববন্ধনে স্বাগত বক্তব্য রাখেন, সনাকের সাবেক সভাপতি ও জলবায়ু অর্থায়নে সুশাসন (সিএফজি) বিষয়ক আহবায়ক মোঃ অবদুর রব আকন।

সভায় বক্তরা বলেন পরিবেশ ও প্রতিবেশ কে না বাচিঁয়ে আমরা বাচঁতে পারব না তাই কুয়াকাটাকে রক্ষা করতে হবে। উন্নত বিশ্বের কার্বন নিঃশরণের ফলে বৈশ্বিক উঞ্চয়ন হচ্ছে যার ফলে জলবায়ু পরিবর্তন হচ্ছে এর বিরুপ প্রভাব পড়ছে দক্ষিণ এশিয়ার দেশ সমূহের উপর। সমূদ্র উপকূলীয় অঞ্চলে এর বিরুপ প্রভাব বেশি হচ্ছে যার ফলে কুয়াকাটা ধ্বংসের মুখে পড়েছে। বক্তরা কুয়াকাটা রক্ষা করার জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষন করেন।

 

নিউজ ডেস্ক / বিজয় টিভি