কেউ আইন নিজের হাতে তুলে নেবেন না : মাননীয় প্রধানমন্ত্রী

সড়কে প্রাণহানির জন্য দোষীদের শাস্তির আওতায় আনার আশ্বাস দিয়ে সড়কে গাড়ি ভাঙচুর না করে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ফিরে যাওয়ার জন্য শিক্ষার্থীদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। একইসঙ্গে এ হুঁশিয়ারিও দিয়েছেন, যারা রাস্তায় গাড়ি ভাঙচুর করে বা বাসে আগুন দেয়, তাদেরও ছেড়ে দেওয়া হবে না।

বুধবার (১ ডিসেম্বর) জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ম্যুরাল উদ্বোধন ও জয়িতা টাওয়ারের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রধানমন্ত্রী এসব কথা বলেন। ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনের এই অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী তার সরকারি বাসভবন গণভবন প্রান্ত থেকে ভার্চুয়াল পদ্ধতিতে যুক্ত হন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘একটা মানুষ মারা গেলো, আর ১৫টা গাড়িতে আগুন দিলেন, এতে যারা আহত বা নিহত হলেন, ক্ষতিগ্রস্ত হলেন; সেই দায়িত্বটা কারা নেবে। তাহলে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে তো তাদের বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নিতে হবে। কেউ আইন নিজের হাতে তুলে নেবেন না।’

শেখ হাসিনা বলেন, ‘রাস্তা পারাপারে সব সময় সতর্ক থাকতে হবে। পারাপারের জন্য যে জায়গাগুলো নির্দিষ্ট, সেখান থেকে পার হতে হবে। হঠাৎ করে দৌড় দেবেন, তা হবে না।’

তিনি বলেন, ‘চালকদের বলি, সতর্কতার সঙ্গে গাড়ি চালাতে হবে। ট্রেনিং নিয়ে গাড়ি চালাতে হবে। আমরাও ড্রাইভিং প্রশিক্ষণ দিচ্ছি। সরকারি পরিবহন প্রশিক্ষিত চালকদের দিয়ে পরিচালনা করা হয়। বেসরকারি বাসের গাড়ি চালকদেরও ট্রেনিং দিতে হবে।’

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘দক্ষিণ সিটি করপোরেশনে ময়লার গাড়ির চাপায় একজন মারা যাওয়ার পর আবার কেন উত্তর সিটি করপোরেশন এলাকায় বাস দুর্ঘটনায় শিক্ষার্থী মারা গেলো, এর কারণ খুঁজে বের করতে হবে।’