ক্যারিয়ারের মোড় ঘুরিয়ে দিতে যাচ্ছে শুভ’র ‘মিশন এক্সট্রিম’

পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটের কিছু শ্বাসরুদ্ধকর অভিযান থেকে অনুপ্রাণিত হয়ে নির্মাণ করা হয়েছে সিনেমা ‘মিশন এক্সট্রিম’। ছবির কাহিনী, চিত্রনাট্য ও সংলাপ লিখেছেন পুলিশের এন্টি টেররিজম ইউনিটের পুলিশ সুপার ও ছবির অন্যতম নির্মাতা সানী সানোয়ার।

কম খাটুনি হয়নি এই ছবিটির জন্য নিজেকে গল্পের নায়ক করে তুলতে হালের নায়ক আরিফিন শুভ’র। দেশের আলোচিত ‘ঢাকা অ্যাটাক’ ছবির পর এই ছবিটি নিয়ে দর্শক আগ্রহ ছিল তুঙ্গে। করোনার বাঁধা কাটিয়ে মুক্তি পাচ্ছে ছবিটি।

মুক্তির মধ্যদিয়ে নতুন ইতিহাস গড়তে যাচ্ছে ছবিটি। সব চমকের খোলাসা হতে যাচ্ছে প্রেক্ষাগৃহে। বাংলাদেশের চলচ্চিত্র ইতিহাসে প্রথমবারের মতো বাংলাদেশসহ বিশ্বের তিনটি মহাদেশে আগামী ৩ ডিসেম্বর মুক্তি পাচ্ছে ছবিটি।

জানা গেছে, ঢাকার সঙ্গে একই সময়ে নিউইয়র্ক, সিডনির প্রেক্ষাগৃহেও সিনেমাটি দেখতে পাবেন দর্শক। যুক্তরাষ্ট্র, অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ড ছাড়া আরও ১১টি দেশে সিনেমাটির মুক্তি পেতে যাচ্ছে।

নিউইয়র্কে ‘মিশন এক্সট্রিম’-এর প্রিমিয়ার শো হবে ৩ ডিসেম্বর রাত ১২টা ১ মিনিটে। জ্যামাইকা মাল্টিপ্লেক্সে সিনেমা কমপ্লেক্সে ৩ ডিসেম্বর থেকে ৯ ডিসেম্বর পর্যন্ত মোট ২৭টি শো চূড়ান্ত করা হয়েছে।

শিগগিরই সিনেমাটি বিশ্বব্যাপী মুক্তির চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশ করা হবে বলে জানা গেছে। কপ ক্রিয়েশনের ব্যানারে নির্মিত সিনেমাটিতে শুভর সঙ্গে দেখা যাবে জান্নাতুল ফেরদৌস ঐশী, তাসকিন রহমানসহ অনেককে।