খাগড়াছড়ি দুর্বৃত্তদের গুলিতে নিহত ৬, আহত ৩

১০৭

খাগড়াছড়ি শহরের অদূরে স্বনির্ভর এলাকায় সন্ত্রাসীদের ব্রাশফায়ারে ৬জন নিহত হয়েছে। এছাড়া গুলিবিদ্ধ হয়েছে আরো ৩জন। শনিবার সকালে  এ ঘটনা ঘটে।

ঘটনার পর শহর জুড়ে থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে। জানা গেছে, গ্রামবাসীদের নিয়ে ইউপিডিএফ’র আজ সকালে একটি সমাবেশ ও বিক্ষোভ মিছিল করার কথা ছিল। সামাবেশে আসার পথেই এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশ জানায়, আনুমানিক সকাল সাড়ে ৮টার দিকে শহরের অদূরে স্বনির্ভর বাজার ও আশপাশ এলাকায় আকস্মিকভাবে অস্ত্রধারী সন্ত্রাসীরা ব্রাশফায়ার করলে ঘটনাস্থলেই ৬জন নিহত ও ৩জন আহত হয়। নিহতদের মধ্যে অধিকাংশই ইউপিডিএফ সমর্থক ও নেতা-কর্মী বলে জানা গেছে। নিহতদের মধ্যে তপন চাকমা, এলটন চাকমা, জিতায়ন চাকমা (স্বাস্থ্য সহাকরী), অনুপম চাকমা, পলাশ চাকমার নাম জানা গেছে।

এদের মধ্যে তপন চাকমা ইউপিডিএফ সমর্থিত পাহাড়ি ছাত্র পরিষদের জেলার ভারপ্রাপ্ত সভাপতি এবং জিতায়ন চাকমা মহালছড়ি উপজেলা সহকারি স্বাস্থ্য পরিদর্শক বলে জানা গেছে।

আহতরা হলেন, সমর বিকাশ চাকমা (৪৮), সুকিরন চাকমা (৩৫) ও সোহেল চাকমা (২২)। পুলিশ হতাহতদের উদ্ধার করে খাগড়াছড়ি আধুনিক সদর হাসপাতালে নিয়ে আসে। এসময় স্বনির্ভর বাজারে অবস্থিত পুলিশ বক্সেও গুলি করে সন্ত্রাসী। গুলিবিদ্ধ ৩জনকে চিকিৎসা দিয়ে চট্টগ্রাম মেডিকেলে রেফার করা হয়েছে।

ইউপিডিএফ’র জেলা সমন্বয়কারি মাইকেল চাকমা ঘটনার জন্য সংস্কারপন্থী জনসংহতি সমিতিকে দায়ী করেছে। এদিকে জনসংহতি সমিতি অভিযোগ অস্বীকার করেছে।

পুলিশ জানিয়েছে, পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। এছাড়া ঘটনায় জড়িতদের খুঁজে বের করে আইনের আওতায় আনার জোর প্রচেষ্টা চলছে বলেও পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয়।

 

নিউজ ডেস্ক / বিজয় টিভি

You might also like