গ্লোব বায়োটেকের করোনা ভ্যাকসিনকে স্বীকৃতি দিল বিশ্ব স্বাস্থ সংস্থা

বাংলাদেশি গ্লোব বায়োটেকের করোনা ভ্যাকসিন ব্যানকোভিড’কে  স্বীকৃতি দিল বিশ্ব স্বাস্থ সংস্থা।

এর আগে গ্লোব বায়োটেক দাবি করেছে যে, তাদের উদ্ভাবিত টিকা ‘ব্যানকোভিড’ প্রাণিদেহে সফলভাবে করোনা প্রতিরোধে সক্ষম।

গেল ১৫ই অক্টোবর গ্লোবের তিনটি ভ্যাকসিনকে বিশ্বজুড়ে করোনা ভ্যাকসিন নিয়ে চলমান গবেষণাগুলোর তালিকায় অন্তুর্ভুক্ত করে বলে নিশ্চিত করেছে গ্লোব বায়োটেক। সরকারের ঔষধ প্রশাসনের অনুমোদন পাওয়ার পর শুরু হবে এই ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল।

করোনার ভ্যাকসিন সম্পর্কে গ্লোব বায়োটেক এর সিইও ড. কাকন নাগ সম্প্রতি জানান, বর্তমানে সারাবিশ্বে করোনা আক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউ চলছে। এই সংক্রমণে ডি৬১৪জি ভ্যারিয়েন্টটি শতভাগ দায়ী বলে সাম্প্রতিক গবেষণায় উঠে এসেছে। বাংলাদেশ শিল্প ও বিজ্ঞান গবেষণা পরিষদও (বিসিএসআইআর) বাংলাদেশে সংক্রমণের জন্য ডি৬১৪জি ভ্যারিয়েন্টকে দায়ী বলে নিশ্চিত করেছে।

তিনি বলেন, “আমাদের নিজস্ব প্রযুক্তিতে উদ্ভাবিত ‘ব্যানকোভিড’ টিকাটি ডি৬১৪জি ভ্যারিয়েন্টের বিরুদ্ধে প্রথম ও একমাত্র আবিষ্কৃত টিকা।”