ঘরে বসেই এখন খোলা যাবে সোনালী ব্যাংকের একাউন্ট

এখন থেকে যে কোন গ্রাহক ঘরে বসেই সোনালী ব্যাংকের একাউন্ট খুলতে পারবেন। একাউন্ট খোলার জন্য গ্রাহকদেরকে স্ব-শরীরে ব্যাংকের কোন শাখায় যাওয়ার দরকার হবে না।

এখন থেকে যে কোন গ্রাহক ঘরে বসেই সোনালী ব্যাংকের একাউন্ট খুলতে পারবেন। একাউন্ট খোলার জন্য গ্রাহকদেরকে স্ব-শরীরে ব্যাংকের কোন শাখায় যাওয়ার দরকার হবে না। কোভিড-১৯ মহামারীর প্রভাব হতে গ্রাহকদের সুরক্ষা দিতে ব্যাংক কর্তৃপক্ষ এ পদক্ষেপ নিয়েছে।

তথ্য, যোগাযোগ ও প্রযুক্তি মন্ত্রনালয় সূত্রে জানাগেছে , গ্রাহকের ছবি ও ব্যক্তিগত তথ্য অটোমেটিক পদ্ধতিতে যাচাই-বাচাই করার জন্য সোনালী ব্যাংক কর্তৃপক্ষ এখন থেকে তথ্য ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের সফটওয়্যার “পরিচয়” ব্যবহার করবে। এ “পরিচয়” সফটওয়্যার গ্রাহকের যে কোন তথ্য (কেওয়াইসি) নিমিষেই বাংলাদেশ জাতীয় ডিজিটাল আর্কিটেকচার (বিএনডিএ) এর সাথে অটোমেটিক মিলিয়ন নিতে পারে।

সোনালী ব্যাংক লিমিটেড এর সিইও এন্ড ম্যানেজিং ডিরেক্টর মোঃ আতাউর রহমান প্রধান বলেন, “এ নতুন বিশ্বে আমরা আমাদের গ্রাহকদের কোন শাখায় না এনেই সোনালী ই-সেবা ব্যবহার করে সোনালী ব্যাংকে একাউন্ট খোলার সুবিধা দেয়ার জন্য এ পদক্ষেপ নিয়েছি। সময়ের সাথে আমরা এ সুবিধা আরও বর্ধিত করবো”

সোনালী ব্যাংক লিমিটেড পরিচালনা পর্ষদের চেয়ারম্যান জিয়াউল হাসান সিদ্দিকী বলেন “এটা সময়ের দাবী। পরিবর্তীত এ পরিস্থিতিতে গ্রাহকের দোঁরগোডায় তথ্য প্রযুক্তি ভিত্তিক ব্যাংকিং সেবা প্রদানের নিমিত্তে আমরা অনলাইনে ব্যাংক হিসাব খোলার ব্যবস্থা গ্রহন করেছি।

এতে গ্রাহক ঘরে বসে মাত্র ২ মিনিটে সোনালী ব্যাংকের হিসাব খুলতে পারবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঘোষিত ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণে তাঁর আইসিটি বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয় এর প্রত্যক্ষ উৎসাহে এবং আইসিটি মন্ত্রণালয়ের সক্রিয় সহযোগিতায় ব্যবহার বান্ধব ডিজিটালাইজড ফিনান্সিয়াল সিস্টেম বাস্তবায়নে আমরা এরূপ কার্যক্রম অব্যাহত রাখবো”

তথ্য, যোগাযোগ ও প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনায়েদ আহমেদ পলক বলেন “সোনালী ব্যাংক লিমিটেড, আইসিটি মন্ত্রণালয়, ‘পরিচয়’ এবং বাংলাদেশ জাতীয় ডিজিটাল আর্কিটেকচার এর মধ্যে অংশীদারীত্বের ফলে বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্ধারিত ব-কণঈ পদ্ধতি বাস্তবায়নের দুর্দান্ত উদাহরণ”। (সুত্র: বাসস)