চট্টগ্রামে নতুন করে ১৪৬ জনের করোনাভাইরাস শনাক্ত

৮৭

চট্টগ্রামে করোনাভাইরাসে সংক্রমণ দ্রুত বাড়ছে। সর্বশেষ ২৪ ঘণ্টায় সংক্রমণের সংখ্যা ও হার বিগত কয়েক মাসের মধ্যে সর্বোচ্চ অবস্থানে উঠে এসেছে। তবে, এসময়ে করোনাক্রান্ত কারো মৃত্যু হয়নি।

সিভিল সার্জন কার্যালয়ের প্রতিবেদনে দেখা যায়, শুক্রবার নগরীর সাতটি ল্যাবে ১ হাজার ৬২ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়। এর মধ্যে নতুন ১৪৬ জনের শরীরে করোনাভাইরাসের উপস্থিতি পাওয়া যায়। এ নিয়ে টানা ছয় দিন আক্রান্তের সংখ্যা শতক ছাড়িয়ে গেলো। সংক্রমণ হার ১৩ দশমিক ৭৫ শতাংশ।

নতুনদের মধ্যে শহরের বাসিন্দা ১৩৫ জন এবং আট উপজেলার ১১ জন। উপজেলায় আক্রান্তদের মধ্যে মিরসরাই, লোহাগাড়া ও পটিয়ার ২ জন করে এবং রাঙ্গুনিয়া, হাটহাজারী, সীতাকুণ্ড, চন্দনাইশ ও বোয়ালখালীর ১ জন করে রয়েছেন। ফলে জেলায় মোট সংক্রমিত ব্যক্তির সংখ্যা এখন ২২ হাজার ৪৮২ জন। এর মধ্যে শহরের ১৬ হাজার ৬৫৪ জন ও বিভিন্ন উপজেলার ৫ হাজার ৮২৮ জন।

শুক্রবার চট্টগ্রামে করোনাক্রান্ত কোনো রোগীর মৃত্যু হয়নি। ফলে মৃতের সংখ্যা ৩০৯ জনই রয়েছে। এতে শহরের ২১৫ জন ও গ্রামের ৯৪ জন। সুস্থতার ছাড়পত্র পেয়েছেন ৫৬ জন। মোট আরোগ্য লাভকারীর সংখ্যা এখন ১৭ হাজার ১২০ জন। এর মধ্যে হাসপাতালে চিকিৎসা নেন ৩ হাজার ৩৪৫ জন এবং হোম আইসোলেশেনে থেকে ১৩ হাজার ৭৭৫ জন। হোম আইসোলেশনে নতুন যুক্ত হন ৩৫ জন ও ছাড়পত্র নেন ৩৩ জন। বর্তমানে হোম আইসোলেশনে রয়েছেন ১ হাজার ১২৯ জন।

আজ (শনিবার) সকালে সিভিল সার্জন ডা. সেখ ফজলে রাব্বি জানান, ‘আক্রান্তের সংখ্যা বেড়েছে। শুক্রবারের সংক্রমণ হার জুন মাসের পর সর্বোচ্চ অবস্থানে উঠে এসেছে। অবশ্য আগের দিন বৃহস্পতিবার সংক্রমণ হার বেশ কিছুটা কম ছিল এবং টানা তিনদিন জেলায় কোনো মৃত্যু নেই।’

You might also like