চাঁপাইনবাবগঞ্জে আহাদুল হত্যা মামলায় পাঁচজনের যাবজ্জীবন

চাঁপাইনবাবগঞ্জের গোমস্তাপুরে আহাদুল হত্যা মামলায় পাঁচজনকে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদন্ড ও ১০ হাজার টাকা করে জরিমানা অনাদায়ে আরো ৬ মাসের বিনাশ্রমের দন্ডাদেশ দিয়েছে আদালত। বুধবার  অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিজ্ঞ বিচারক শওকত আলী এ রায় প্রদান করেন।

দন্ডপ্রাপ্ত আসামী হলো, চাঁপাইনবাবগঞ্জের গোমস্তাপুর উপজেলার ভাগলপুর গ্রামের তোহর আলীর ছেলে দবির, একই গ্রামের এরফান আলী টিপুর ছেলে হামেদ আলী এবং রুমেদ; মৃত আবু বাক্কারের ছেলে আকালু ও মৃত ভোগা তেলীর ছেলে এরফান আলী টিপু।

মামলার বিবরণে জানা যায়, জমি-জমা ও পুকুরের মাছ মারার ঘটনাকে কেন্দ্র করে হাকিমের সাথে দবির পক্ষের দন্ড চলে আসছিল।

এরই জের ধরে জেলার গোমস্তাপুর উপজেলার ভাগলপুর গ্রামের দুখু মন্ডলের ছেলে আহাদুল ২০০৯ সালের ১৬ অক্টোবর সন্ধ্যার পর খোয়াড়ের মোড় এলাকা দিয়ে বাড়ি যাবার সময় প্রতিপক্ষ দবিরের নের্তৃত্বে বেশ কয়েকজনের দল ধারালো অস্ত্র দিয়ে উপযুপরি আঘাত করে। স্থানীয়রা তাকে দ্রুত গোমস্তাপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করলে চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করে।

নিহতের শ্বশুর একই গ্রামের মোঃ সামসুল পরের দিন গোমস্তাপুর থানায় ১৩ জনকে আসামী করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করে।

গোমস্তাপুর থানার ওসি ও এই মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা মোঃ বাবর আলী ঐ বছরের ৩১ ডিসেম্বর আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন।

সাক্ষ্য প্রমানাদি শেষে অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিজ্ঞ বিচারক উপরোক্ত দন্ডাদেশ এবং বাকী আট জনকে বেকুসুর খালাস প্রদান করেন। এদিকে দন্ডপ্রাপ্ত আসামী হামেদ আলী এবং রুমেদ পলাতক রয়েছে।

নিউজ ডেস্ক / বিজয় টিভি