চীনে রাসায়নিক প্ল্যান্টে বিস্ফোরণে অন্তত ২২ জন নিহত

৬৫

চীনে একটি রাসায়নিক কারখানার কাছে বিস্ফোরণে অন্তত ২২ জন নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও ২২ জন।

প্রতক্ষ্যদর্শীরা জানিয়েছেন, স্থানীয় সময় রাত ১২টা ৪০ মিনিটে রাসায়নিক প্লান্টটিতে বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। বিস্ফোরণের পর রাসায়নিক প্ল্যান্টের কাছাকাছি থাকা ৩৮টি ট্রাক ও ১২টি গাড়িতেও দ্রুত আগুন ধরে যায়। আগুনে এসকল যানবাহন ভস্মিভূত হয়ে গেছে।

চীনের রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যম দ্য পিপলস ডেইলির এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, রাজধানী বেইজিং থেকে প্রায় ২০০ কিলোমিটার দূরের শেংহুয়া কেমিক্যাল কোম্পানির কাছে এই বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। বিস্ফোরণে প্রায় ৫০টি যানবাহন পুড়ে গেছে।

পুলিশ জানিয়েছে, এ ঘটনায় আহতদের স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তবে এখন পর্যন্ত বিস্ফোরণের কারণ জানা যায়নি।

এদিকে বিস্ফোরণের ঘটনার পর হেবাই শেনহুয়া কেমিক্যাল কম্পানির উৎপাদন কাজ বন্ধ রাখা হয়েছে। ওই কেমিক্যাল প্লান্টের মুখপাত্র নিশ্চিত করেছেন, বিস্ফোরণের ঘটনা শেনহুয়ায় ঘটেনি।

উল্লেখ্য, সাম্প্রতিক কালে চীনের বেশ কিছু রাসায়নিক কারখানা ও গুদামে আগুন লাগার ঘটনা ঘটেছে। গত ১৩ জুলাই চীনের সিচুয়ান প্রদেশে একটি রাসায়নিক কারখানায় বিস্ফোরণে অন্তত ১৯ জন নিহত হয়। ওই ঘটনায় আহতের সংখ্যা ছিল ১২। জিয়াংআন কাউন্টি শিল্পাঞ্চলে ‘ইয়েবিন হেংদা টেকনলোজি’ পরিচালিত রাসায়নিক প্ল্যান্টে এই বিস্ফোরণ হয়।

এরপর গত ২৪ নভেম্বর চীনের ঝিলিন প্রদেশের একটি গুদামে বিস্ফোরণে ২ জন নিহত হন। এতে আহত হন ৫৭ জন। বিস্ফোরণের তীব্রতা এতটাই ছিল যে আশপাশের ৩৭০টি বাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয় এবং ১৫টি বাড়ি ভেঙে যায়।

এর আগে ২০১৫ সালে রাসায়নিক কারখানায় বিস্ফোরণে প্রায় ১৬৫ জন মারা যান। ওই ঘটনার তদন্তে পাওয়া যায়, বিপদজনক রাসায়নিক দ্রব্য অবৈধভাবে সংরক্ষণ করা হয়েছিল। সেখান থেকে বিস্ফোরণ ঘটে।

নিউজ ডেস্ক / বিজয় টিভি

You might also like