চেতনানাশক ইনজেকশন দিয়ে প্রেমিককে হত্যা, প্রেমিকা আটক

২৮

প্রেমিককে ডেকে এনে অ্যানেসথেসিয়ার অতিরিক্ত ডোজ দিয়ে হত্যা করার অভিযোগে লাভলী খাতুন (২২) নামের প্রেমিকাকে আটক করেছে সিরাজগঞ্জ সিআইডি পুলিশ।

বৃহস্পতিবার (১৮ ফেব্রুয়ারী) দুপুরে সিরাজগঞ্জ সিআইডির পুলিশ পরিদর্শক নুরে আলম সিদ্দিকী আটকের বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

নিহত রুবেল রানা (২৮) টাঙ্গাইলের কালিহাতি থানার শ্যামশৈল গ্রামের আব্দুল লতিফের ছেলে ও আটককৃত প্রেমিকা লাভলী খাতুন টাঙ্গাইলের ঘাটাইল থানার রসুলপুর গ্রামের লাল মিয়ার মেয়ে।

সিরাজগঞ্জ সিআইডি পুলিশের ইন্সপেক্টর ও মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা মোহাইমিনুল ইসলাম জানান, গত ২৭ জানুয়ারি সকালে বঙ্গবন্ধু সেতু পশ্চিমপাড় সদর থানার ইকোপার্কে একটি লাশ পাওয়া যায়। সংবাদ পেয়ে সদর থানা পুলিশ ও সিআইডির ক্রাইমসিন টিম ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ উদ্ধার ও আলামত সংগ্রহ করেন।

এরপর অজ্ঞাতনামা হিসেবে সদর থানায় জিডি দায়ের করে লাশের ময়নাতদন্ত করা হয়। সন্ধ্যার পর লাশের পরিচয় পাওয়া যায়। ওইদিন রাতেই নিহত রুবেল রানার বাবা বাদী হয়ে সদর থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন। এ ঘটনায় গত ১৬ ফেব্রুয়ারী গভীর রাতে ঢাকা ধামরাই এলাকা থেকে লাভলীকে আটক করা হয়েছে।

তিনি আরো জানান, অ্যানেসথেসিয়ার অতিরিক্ত ডোজের কারণে রুবেল মারা যায়। পরদিন তার মরদেহ পাওয়া যায়। তিনি জানান, তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে লাভলী খাতুনকে আটক করা হয়। এসময় তার কাছ থেকে রুবেলের একটি ব্যবহৃত মোবাইল ফোনও উদ্ধার করা হয়েছে।