চ্যাম্পিয়নস লিগের শেষ ষোলোতে খেলা হচ্ছে না নেইমারের

অস্ত্রোপচার না করার সিদ্ধান্ত নেওয়াতেই ১০ সপ্তহের মধ্যে মাঠে ফিরতে পারছেন নেইমার। ফিরতে পারেন এপ্রিলের মাঝামাঝিতে। ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের বিপক্ষে চ্যাম্পিয়নস লিগের শেষ ষোলোতে খেলা হচ্ছে না তাঁর।

 

টানা দ্বিতীয় মৌসুমে ডান পায়ের মেটাটারসালে চোট পেয়েছেন নেইমার, গত মৌসুমের মতো এবারও অস্ত্রোপচার করাতে হলে পিএসজির ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ডের মৌসুমই শেষ হয়ে যেত। সেদিক থেকে ভাবলে নেইমার ভক্তদের জন্য সুখবরই। তবে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের বিপক্ষে চ্যাম্পিয়নস লিগের শেষ ষোলোতে যে খেলা হচ্ছে না, তা প্রায় নিশ্চিতই ছিল। শঙ্কা ছিল আরও বড় কিছুর।

 

পিএসজি জানিয়েছে, অস্ত্রোপচার করাতে হচ্ছে না ২৬ বছর বয়সী ফরোয়ার্ডকে। সে ক্ষেত্রে মাঠে ফিরতে ১০ সপ্তাহ লেগে যেতে পারে নেইমারের। অস্ত্রোপচার ছাড়া অর্থোপেডিক চিকিৎসার মাধ্যমে ওই হাড়টিকে আগের অবস্থায় ফিরিয়ে নিয়ে আসা হবে। সঙ্গে ইনজেকশনের মাধ্যমে স্টেম সেলও দেওয়া হবে।

গত মৌসুমে একই হাড়ে চোট পেয়েছিলেন নেইমার, তখন প্রথমে রাজি না হলেও ব্রাজিল দলের ডাক্তার রদ্রিগো লাসমারের জোরাজুরিতে অস্ত্রোপচারে রাজি হয় পিএসজি। ৯৮ দিনের পুনর্বাসন-প্রক্রিয়া শেষে রাশিয়া বিশ্বকাপের ঠিক আগে মাঠে ফিরেছিলেন নেইমার।

 

এবার বিশ্বকাপ নেই, কিন্তু কোপা আমেরিকা আছে। সেটিও আবার ব্রাজিলেই। নেইমার চোট পাওয়ার পরই তাই ব্রাজিল কোচ তিতে ও দলের ডাক্তার লাসমার গত সপ্তাহে চলে আসেন প্যারিসে। তিতে তো জানিয়েও দিয়েছিলেন, যদি অস্ত্রোপচার হয়, আর এরপর ঠিক সময়ে সেরে উঠতে না পারেন নেইমার, তাহলে আধা ফিট নেইমারকে কোপা আমেরিকার জন্য বিবেচনা করবেন না।

তাতে নেইমার আগের অবস্থায় দ্রুত ফিরে এলে তো পিএসজি-ব্রাজিল দুই পক্ষেরই লাভ।

নিউজ ডেস্ক / বিজয় টিভি