জেসমিন হত্যা মামলায় খালাস পেলেন স্বামী শহিদুল

১৪১

রাজধানীর তুরাগ এলাকায় জেসমিন আক্তার নামে এক গৃহবধূকে শ্বাসরোধে হত্যার অভিযোগে দায়ের করা মামলায় স্বামী মো. শহিদুল ইসলামকে খালাস দিয়েছেন আদালত।

বৃহস্পতিবার (৭ জানুয়ারি) দুপুরে ঢাকার দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালের বিচারক আবু জাফর মো. কামরুজ্জামান এ রায় দেন।

২০১১ সালে ২৬ ডিসেম্বর মামলার তদন্ত কর্মকর্তা শহিদুলকে একমাত্র আসামি করে আদালতে অভিযোগপত্র দেন। ২০১২ সালের ৫ সেপ্টেম্বর আদালত জেসমিনের স্বামী মো. শহিদুল ইসলামের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেন। এ মামলায় রাষ্ট্রপক্ষে ১৩ জন সাক্ষীর মধ্যে মোট ১২ জন ট্রাইব্যুনালে সাক্ষ্য দেন।

মামলার অভিযোগ থেকে জানা যায়, ২০১১ সালের ২২ আগস্ট রাত ১২টা থেকে ৩টার মধ্যে ঢাকার তুরাগ থানার রানাভোলায় মুক্তার হোসেনের বাড়ির ভাড়াটিয়া মো. শহিদুল ইসলাম তার স্ত্রী জেসমিন আক্তারকে শ্বাসরোধে হত্যা করেন। ঘটনার সময় জেসমিন আক্তারের সাড়ে চার বছরের কন্যাসন্তান তাসমিনা আক্তার এ ঘটনা দেখে ফেলে।