টাইগারদের স্পিনারদের মোকাবেলায় অভিজ্ঞতার উপর নির্ভর করবে জিম্বাবুয়ে

১৯

জিম্বাবুয়ের সিনিয়র ক্রিকেটার সিকান্দার রাজা মনে করেন বাংলাদেশের স্পিনারদের মোকাবেলার মত পর্যাপ্ত অভিজ্ঞতা রয়েছে জিম্বাবুয়ে দলের। অতীতে এই স্পিনারই দীর্ঘ ভার্সনে দারুনভাবে ভুগিয়েছে জিম্বাবুয়েকে।

তারপরও আফ্রিকার দেশটিকে নির্ভর করতে হবে দুই দিনের অনুশীলন ম্যাচ থেকে অর্জিত অভিজ্ঞতার উপর। যদিও স্বাগতিক অনুর্ধ-১৯ দলের খেলোয়াড় শাহাদাৎ হোসেনকে খুব ভালভাবে মোকাবেলা করতে পারেনি জিম্বাবুয়ে। অনিয়মিত এই স্পিনার সংগ্রহ করেছেন তিন উইকেট।

ইতিহাস বলছে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে দারুন সফল বাংলাদেশের স্পিনাররা। এবার অভিজ্ঞ বিশ্বতারকা সাকিব আল হাসান না খেললেও জিম্বাবুয়ের জন্য আরো বেশী বিপদ হিসেবে আসতে পারেন তাইজুল ইসলাম, মেহেদী হাসান মিরাজ ও নাইম হাসানরা। তাইজুলের ক্যারিয়ার সেরা ৩৯ রানে ৮ উইকেট সংগ্রহ করার রেকর্ডটিও এই জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে।

তবে জানুয়ারিতে নিজেদের মাঠে সফরকারী শ্রীলংকান স্পিনারদের বিপক্ষে সফলতার কারনে খুবই আশাবাদী সিকান্দার রাজা।

দুই ম্যাচের ওই টেস্ট সিরিজে লংকানদের কাছে ১-০ ব্যবধানে সিরিজ হারার আগে দারুন লড়াই কেরেছে জিম্বাবুয়ে। সর্বশেষ ২০১৮ সিরিজে সিলেটে অনুষ্ঠিত টেস্টে বাংলাদেশের বিপক্ষে জয়ের অভিজ্ঞতাও রয়েছে সফরকারীদের। এসময় তারা সফলতার সঙ্গে মোকাবেলা করেছে বাংলাদেশী স্পিনারদের।

বৃহস্পতিবার মিরপুরের শেরেবাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে অনুশীলনে নামার আগে সিকান্দার রাজা সাংবাদিকদের বলেন,‘ আমাদের বিপক্ষে বাংলাদেশী স্পিনারদের ভাল রেকর্ড রয়েছে। কিন্তু বাংলাদেশে এসে আমরা যে অভিজ্ঞতা ও শিক্ষা অর্জন করেছি তা দিয়ে মনে হয় আমরা আরো ভাল খেলা উপহার দিতে পারব।

তাদের স্পিনররা হয়তো অনেক উইকেট পেয়েছে, কিন্তু আমরা তাদের বিপক্ষে রান করতেও শুরু করেছি। যার উৎকৃস্ট উদাহরণ হতে পারে আমাদের জয় লাভ করা সিলেট টেস্ট।

ঘরের মাঠে শ্রীলংকার কাছে আমরা প্রথম টেস্টে হেরে গেলেও পরের ম্যাচে ড্র করতে সক্ষম হয়েছি। দ্বিতীয় ম্যাচের ফলাফলে যেটুকু প্রকাশ পেয়েছে আমরা এর চেয়েও ভাল করেছি। ওই ম্যাচে আমরা ড্র করলেও জয়ের দারুন সম্ভাবনা সৃস্টি করেছিলাম।

ওই পারফর্মেন্স আমাদের আত্মবিশ্বাসকে অনেকগুন বাড়িয়ে দিয়েছে। আশা করি বাংলাদেশেও আমরা এটা করতে পারব।’
দলে নবাগতদের মানষিক অবস্থা চমৎকার উল্লেখ করে সিকান্দার রাজা বলেন, তারাই জিম্বাবুয়ে ক্রিকেটের হারানো গৌরব ফিরিয়ে আনার আশা দেখাচ্ছে।

তিনি বলেন,‘ দলে সাইড বেঞ্চে থাকা খেলোয়াড়দের সামর্থ্যও দারুন। বছর ধরে আমরা একত্রে থাকায় ছেলেদের মানষিক সামর্থ্যও শক্তিশালী হয়েছে। ছেলেদের মানষিক সামর্থ্যই আমাদের মুল শক্তি। আমরা এই চ্যালেঞ্জ নেয়ার জন্য প্রস্তুত।’(বাসস)

অনলাইন নিউজ ডেস্ক/বিজয় টিভি

You might also like