ডাকসুর নবনির্বাচিত ভিপি নূরকে স্বাগত জানালেন পরাজিত প্রার্থী ছাত্রলীগ সভাপতি শোভন

ডাকসু নির্বাচনকে কেন্দ্র করে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে সৃষ্ট অনাকাঙ্কিত পরিস্থিতি সহজেই সামলে ওঠা গেছে। শৃঙ্খলা ফিরেছে দেশের শীর্ষস্থানীয় এই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে। ক্ষুব্ধ নেতাকর্মীদের শান্ত করেন ছাত্রলীগের সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন । তিনি নির্বাচিত ভিপি নুরুল হক নুরকে বরণ করে এবং তাকে সর্বাত্মক সহযোগিতার আশ্বাস দেন। সংশ্লিষ্ট একাধিক সূত্রে নিশ্চিত হওয়া গেছে, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনায় ক্যাম্পাসের স্বাভাবিক পরিবেশ ফিরিয়ে আনতে সম্ভাব্য সব পদক্ষেপ নেন ছাত্রলীগ সভাপতি।

মঙ্গলবার (১২ মার্চ) সকালে ডাকসুর ভিপি পদে পুনরায় ভোটের দাবিতে ভিসির বাসভবনের সামনে বিক্ষোভ শুরু করেন ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা। এসময় শোভন সেখানে গিয়ে তাদের শান্ত করেন, তাদের হলে ফিরে যাওয়ার নির্দেশ দেন। পরে নির্বাচিত ভিপি নুুরল হককে বরণ করে তাকে সর্বাত্মক সহযোগিতার আশ্বাস দেন।

আওয়ামী লীগের একাধিক সূত্র ও শোভনের ঘনিষ্ঠ দুটি সূত্র থেকে জানাযায়, ভিসির বাসভবনের সামনে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের বিক্ষোভ শুরু হলে প্রধানমন্ত্রী ফোনে শোভনকে ক্যাম্পাসে শৃঙ্খলা ফেরানোর নির্দেশ দেন। এর পরপরই শোভন তার ঘনিষ্ঠদের নিয়ে সেখানে যান। তিনি নেতাকর্মীদের শান্ত করেন। ভিপি হিসেবে নুরুল হককে মেনে নেওয়ার আহ্বান জানিয়ে সবাইকে চলে যাওয়ার নির্দেশ দেন। এ সময় অনেক নেতাকর্মী সেখান থেকে সরে যেতে রাজি না থাকায় শোভনের অনড় অবস্থানের কারণে তারা স্থানত্যাগ করতে বাধ্য হন। এরপর শোভন টিএসসিতে গিয়ে নুরের সঙ্গে কোলাকুলি করেন। তাকে সহযোগিতারও ঘোষণা দেন ছাত্রলীগ সভাপতি। পাশাপাশি ছাত্রলীগের সবাইকে নিয়মিত ক্লাস-পরীক্ষায় অংশ নেওয়ার আহ্বান জানান তিনি। এরপরই স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে আসে ক্যাম্পাস।

আরেকটি সূত্র জানায়, গতকাল সোমবার (১১ মার্চ) নির্বাচন চলাকালেও প্রধানমন্ত্রী শোভনকে ফোন করে নির্বাচনের খোঁজ-খবর নেন। তবে এ বিষয়ে জানতে চাইলে শোভন কোনও মস্তব্য করতে রাজি হননি। তিনি শুধু বলেন, ক্যাম্পাসে শিক্ষার পরিবেশ বজায় রাখতে ছাত্রলীগ কাজ করে যাবে।

তবে ছাত্রলীগ শান্ত হলেও ডাকসু নির্বাচনের সঙ্গে জড়িত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক-কর্মকর্তা-কর্মচারীদের পদত্যাগে তিন দিনের আল্টিমেটাম দিয়েছেন পরাজিত ভিপি প্রার্থী এবং ছাত্র ইউনিয়নের সভাপতি লিটন নন্দী।

 

নিউজ ডেস্ক / বিজয় টিভি