নাগরপুরে সেতুর অভাবে দুর্ভোগে ৭ গ্রামের মানুষ

টাঙ্গাইলের মোকনা ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ডের ৭টি গ্রামের জনগণের উপজেলা শহরের সঙ্গে যোগাযোগের একমাত্র সড়ক এটি। এই সড়ক দিয়ে পংবাইজোড়া, লাড়ুগ্রাম, দেইল্লা, স্বল্প লাড়ুগ্রাম, নিউ চৌহলী পাড়া, পংবড়টিয়া ও ঘুণি গ্রামের স্কুল-কলেজগামী ছাত্রছাত্রীসহ হাজার হাজার পথচারী প্রতিনিয়ত যাতায়াত করে।

প্রায় বছর তিনেক আগে এলাকাবাসী স্বেচ্ছাশ্রমের মাধ্যমে নদীর উপর এই বাঁশের সাঁকোটি নির্মাণ করে। কিন্তু বর্তমানে বাঁশের সাঁকোটি প্রায় ভেঙে গেছে। সেতু না থাকায় বর্ষা মৌসুমে পানির স্রোতের মধ্যেই সাঁকো দিয়ে ঝুঁকি নিয়ে পারাপার হতে হয়। এদিকে, স্থানীয় প্রশাসন, জনপ্রতিনিধিদের কাছে বার বার ব্রিজ নির্মাণের দাবি জানিয়েও কোনো ফল পায়নি এলাকাবাসী।

ইতোমধ্যে কয়েকবার উপজেলা প্রকৌশলী অফিসে সেতু নির্মাণের প্রস্তাবনা পাঠানো হলেও তাতে কোনো কাজ হয়নি বলে জানালেন মোকনা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. আতাউর রহমান কোকা।

তবে, উপজেলা প্রশাসন সিফাত-ই-জাহান বলছে, জনদুর্ভোগ লাঘবে দ্রুত ব্যবস্থা নেয়ার জন্য এলজিইডিকে অনুরোধ করা হবে।

জরুরিভাবে নদীর ওপর সেতু নির্মাণ করে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ ৭টি গ্রামের মানুষকে চরম দুর্ভোগের হাত থেকে রেহাই দিবে, এমনটাই প্রত্যাশা এলাকাবাসীর।

You might also like