নেপালে বন্যা-ভূমিধসে কমপক্ষে ৭৭ জনের মৃত্যু, নিখোঁজ ২৬

গত ২ দিনে ভারী বৃষ্টিপাতের কারণে বন্যা ও ভূমিধসে নেপালে কমপক্ষে ৭৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। এছাড়া, আরও ২৬ জন নিখোঁজ আছেন।

নেপালের সংবাদমাধ্যম কাঠমান্ডু পোস্টের প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

চলতি বছরের বর্ষা মৌসুমের প্রথম মাসে ১১ জুন থেকে ১৫ জুলাইয়ের মধ্যে সারা দেশে ৬১ জনের মৃত্যু হয়েছিল। সাধারণত, নেপালে বর্ষা মৌসুম শুরু হয় ১০ জুন এবং ৩ অক্টোবর পর্যন্ত স্থায়ী হয়।

তবে, চলতি সপ্তাহের অপ্রত্যাশিত এবং ভারী বৃষ্টিপাতের জন্য ভারতের পূর্ব উপকূলের বঙ্গোপসাগরে ঘূর্ণিঝড়কে কারণ হিসেবে দায়ী করা হয়েছে।

এ বছর প্রাক-বর্ষাকাল থেকে নেপালে অতিরিক্ত বৃষ্টিপাত শুরু হয় এবং ১১ জুন বর্ষা মৌসুম শুরু হলেও তা অব্যাহত ছিল। বর্ষা মৌসুমের তৃতীয় মাসে নেপালে ইতোমধ্যে প্রায় ৭০ শতাংশ বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে।

আবহাওয়াবিদরা বছরের এমন বৃষ্টিপাতের জন্য জলবায়ু পরিবর্তনের জন্য দায়ী করেছেন।

ন্যাশনাল ডিজাস্টার রিস্ক রিডাকশন অ্যান্ড ম্যানেজমেন্ট অথরিটির ডেপুটি মুখপাত্র বেড নিধি খানাল জুলাইয়ে কাঠমান্ডু পোস্টকে বলেছিলেন, আমরা চরম এবং তীব্র বৃষ্টিপাতের সঙ্গে এক ধরনের ‘বিভ্রান্তিকর’ বর্ষার অভিজ্ঞতা অর্জন করেছি। যা জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাবের সঙ্গে যুক্ত হতে পারে। এ ধরনের বৃষ্টিপাতের কারণে প্রাণহানি এবং সম্পদ ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে।

সরকারের দুর্যোগ ঝুঁকি হ্রাস পোর্টাল অনুযায়ী, গত ১৪ জুন থেকে ৯ অক্টোবরের মধ্যে বৃষ্টিজনিত ঘটনায় মোট ১৩৬ জন মারা গেছেন, ৪৫ জন নিখোঁজ এবং ১৪৪ জন আহত হয়েছেন।

তবে, গত ২ দিনের প্রাণহানি এ বছরের বর্ষাকালের চার মাসে রেকর্ড করা মৃতের সংখ্যার অর্ধেকেরও বেশি।

You might also like