নৌকার চেয়ারম্যান প্রার্থীকে গুলি করে হত্যা

রাঙ্গামাটির কাপ্তাই উপজেলার চিৎমরম ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের চেয়ারম্যান প্রার্থী ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি নেথোয়াই মারমাকে (৫৬) গুলি করে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। আগামী ১১ নভেম্বর অনুষ্ঠিতব্য ইউপি নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী ছিলেন তিনি।

শনিবার দিবাগতরাত ১২টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

রাঙামাটি জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হাজি মুছা মাতব্বর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। এই হত্যাকাণ্ডের জন্য পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতিকে (জেএসএস) দায়ী করেছেন তিনি।

রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ সদস্য ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অংসুচাইন চৌধুরী জানান, নেথোয়াই মারমা এত দিন উপজেলা রেস্টহাউসে ছিলেন। শনিবার মনোনয়ন জমা দিয়ে চিৎমরম এলাকায় গিয়েছিলেন নেতাকর্মী ও স্বজনদের সঙ্গে দেখা করতে। রাতে তার নিজ বাড়িতে জেএসএসের একদল সশস্ত্র সন্ত্রাসী তাকে গুলি করে হত্যা করে।

অংসুচাইন চৌধুরী আরও জানান, চিৎমরমে দুই যুবলীগ নেতাকে হত্যার ঘটনার পর নেথোয়াই উপজেলা সদরে রেস্টহাউসেই থাকতেন। শনিবার মনোনয়ন জমা দিয়ে বাড়িতে পরিবারের সঙ্গে পরামর্শ করতে যান। কিন্তু রাত ১২টার পরে আগাপাড়া এলাকার বাসায় ১৪-১৫ জনের একদল সশস্ত্র সন্ত্রাসী বাসার দরজা ভেঙে প্রবেশ করে তাকে গুলি করে হত্যা করে।

রাত ১টার দিকে হাজি মুছা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে স্থানীয় সকল চেয়ারম্যান প্রার্থীকে সজাগ থাকার জন্য অনুরোধও করেছেন। তিনি বলেছেন, চিৎমরম ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের চেয়ারম্যান পদপ্রার্থীকে কিছুক্ষণ আগে হত্যা করা হয়েছে। সকল চেয়ারম্যান প্রার্থীকে সজাগ থাকার জন্য অনুরোধ করা হলো।

কাপ্তাইয়ের চন্দ্রঘোনা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইকবাল বাহার চৌধুরী বলেন, আমরা জেনেছি আওয়ামী লীগের নৌকার প্রার্থী নেথোয়াই মারমাকে গুলি করে হত্যা করেছে একদল দুর্বৃত্ত। পুলিশ সেখানে যাচ্ছে। সেখানে গেলে বিস্তারিত জানতে পারবো।

You might also like