পিরোজপুরে চাষীদের কপালে চিন্তার ভাজ!

মহামারি করোনার প্রাদুর্ভাবে জেলার বাহির থেকে পাইকার আসতে না পারায়, পিরোজপুরে লিচু চাষীদের কপালে এখন চিন্তার ভাজ। গভীর সঙ্কটে থাকায় চাষীদের উৎপাদন খরচ উঠবে কী-না তাই নিয়ে চিন্তিত ফল চাষীরা।

মহামারি করোনার প্রাদুর্ভাবে জেলার বাহির থেকে পাইকার আসতে না পারায়, পিরোজপুরে লিচু চাষীদের কপালে এখন চিন্তার ভাজ। গভীর সঙ্কটে থাকায় চাষীদের উৎপাদন খরচ উঠবে কী-না তাই নিয়ে চিন্তিত ফল চাষীরা।

পিরোজপুর জেলার উত্তরের জনপদ নাজিরপুর গ্রামটিতে রয়েছে বিভিন্ন জাতের লিচু, সুস্বাদু আম, মাল্টা ও কলাসহ নানা ধরনের ফল-ফলাদির বাগান। এখানে আবহাওয়া, পরিবেশ, মৃত্তিকা ও জলবায়ু অনুকূল হওয়ায় এসব এলাকায় ফল চাষের জন্য আশীর্বাদ বয়ে এনেছে বলা চলে।

এছাড়া, কৃষকদের আগ্রহের কারণে নাজিরপুরের শত শত একর জমিতে প্রতিবছর গড়ে উঠছে বিভিন্ন জাতের ফল বাগান। এবছর নাজিরপুরে চলতি মৌসুমে লিচু ও আমসহ অন্যান্য ফলের উৎপাদন আশাব্যঞ্জক হওয়ায় বেশ খুশীই ছিল ফল চাষীরা। তবে, করোনার প্রাদুর্ভাবে জেলার বাহির থেকে পাইকার না আসায় স্থানীয় পাইকারদের কাছে এসব উৎপাদিত লিচু পানির দামে বিক্রি করতে বাধ্য হচ্ছেন তারা।

 নিউজ ডেস্ক/বিজয় টিভি