পেঁয়াজ নিয়ে আতঙ্কিত না হওয়ার আহ্বান বাণিজ্যমন্ত্রীর

দেশে পর্যাপ্ত পরিমাণে পেঁয়াজ মজুদ আছে, আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই। আগামী এক মাসের মধ্যে পেঁয়াজের সরবরাহ স্বাভাবিক হবে বলে জানিয়েছেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি৷

বুধবার (১৬ সেপ্টেম্বর) বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে পেঁয়াজসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য মজুত, সরবরাহ ও মূল্য পরিস্থিতি নিয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা জানান তিনি।

তিনি বলেন, ‘ভারত হঠাৎ পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ করে দেয়ায় একটু সমস্যা হয়েছে। অন্য মার্কেট থেকে পেঁয়াজ আনার চেষ্টা করছি। আমরা আগামী ৩০ দিন সময় পেলে অন্য দেশ থেকে পেঁয়াজ আনব। তখন আর তেমন সমস্যা হবে না।’

বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, দেশে পেঁয়াজের বর্তমান মজুদ রয়েছে ৫ লাখ টন। আর চাহিদার তুলনায় ঘাটতি রয়েছে ৪ লাখ টন। তাই পেঁয়াজ নিয়ে আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই। পাশাপাশি দাম নিয়ন্ত্রণে আনতে টিসিবির সঙ্গে ই-কমার্সকে যুক্ত করতে যাচ্ছে সরকার।

 তিনি বলেন, ‘ভারত পেঁয়াজ দেয়া বন্ধ করায় অসাধু ব্যবসায়ীরা সুযোগ নিয়েছে। ভোক্তারাও বেশি করে পেঁয়াজ কিনছেন। এটি একটি ‘প্যানিক বায়িং’ তৈরি করছে। এটা তৈরির দরকার নেই।’অসাধু ব্যবসায়ীদে বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে মন্ত্রী হুঁশিয়ারি দেন।

গত সোমবার (১৪ সেপ্টেম্বর) বিকেলে বাংলাদেশে পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ করে দেয় ভারত। পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ ঘোষণা করায় বেনাপোলের ওপারে পেট্রাপোলে আটকা পড়েছে পেঁয়াজভর্তি প্রায় ১৫০টি ট্রাক। একই অবস্থা অন্যান্য স্থলবন্দরেও। ভারতের শুল্ক কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, সোমবার কিছু নীতিগত পরিবর্তন হওয়ার কারণে পেঁয়াজের রপ্তানি বন্ধ করা হয়েছে।

নিউজ ডেস্ক/ বিজয় টিভি