ফ্রান্সে করোনায় আরো ৫৮৮ জনের মৃত্যু

ফ্রান্সের বিভিন্ন হাসপাতালে শুক্রবার করোনাভাইরাসে আরো ৫৮৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ মহামারি ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার পর থেকে দেশটিতে ২৪ ঘণ্টায় এটি সর্বোচ্চ সংখ্যায় মৃত্যুর ঘটনা। খবর এএফপি’র।

ফ্রান্সের শীর্ষ স্বাস্থ্য কর্মকর্তা জারোমি সালোমন সাংবাদিকদের বলেন, এনিয়ে দেশটির হাসপাতালে কোভিড-১৯ ভাইরাসে মারা যাওয়া লোকের সংখ্যা বেড়ে মোট ৫ হাজার ৯১ জনে দাঁড়ালো।

ফ্রান্সের বিভিন্ন বৃদ্ধনিবাসে কোভিড-১৯ ভাইরাসে মারা যাওয়াদের প্রতিদিনের হিসাবের তালিকায় আনা হয়নি। তবে সালোমন জানান, দেশটিতে মহামারি ছড়িয়ে পড়ার পর থেকে কোভিড-১৯ ভাইরাসে এ ধরনের বৃদ্ধানিবাসে মোট ১ হাজার ৪১৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। এনিয়ে ফ্রান্সে করোনাভাইরাসে মৃতের সংখ্যা বেড়ে মোট ৬ হাজার ৫০৭ জনে দাঁড়িয়েছে।

এ বৈশ্বিক মহামারি ভাইরাস ছড়িয়ে পড়া রোধে ফ্রান্স গত ১৭ মার্চ থেকে দেশে লকডাউন ঘোষণা করে। লকডাউন চলাকালে কেবলমাত্র জরুরি প্রয়োজনে বাইরে যাওয়ার সুযোগ রাখা হয়েছে। তবে এক্ষেত্রে ঘরের বাইরে বের হওয়া ব্যক্তিকে উপযুক্ত প্রমাণ সঙ্গে রাখতে হবে।

সালোমন জানান, একই সময়ে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত আরো ১ হাজার ১৮৬ জনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এদিকে শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটায় আরো ২৬৩ জনকে নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে নেয়া হয়েছে।
তিনি জানান, ফ্রান্সে মোট ৬৪ হাজার ৩৩৮ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে। এ সংখ্যা আগের দিনের চেয়ে ৫ হাজার ২৩৩ জন বেশি।

ফ্রান্সের বর্তমান পরিস্থিতির উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘আপনারা জীবন বাঁচাতে চাইলে ঘরে থাকুন।’

অনলাইন নিউজ ডেস্ক/বিজয় টিভি