বন্ধ করা হলো মিয়ানমার সেনাপ্রধানের ফেসবুক

৯৩

বানোয়াট তথ্য দিয়ে ঘৃণা ছড়িয়ে সাম্প্রদায়িক বিদ্বেষ তৈরি ও মানবাধিকার লঙ্ঘনের সুস্পষ্ট প্রমাণ পাওয়ায় মিয়ানমারের সামরিক বাহিনীর প্রধান ও সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের অ্যাকাউন্ট ও অর্ধশতাধিক পেজ বন্ধ করে দিয়েছে ফেসবুক।

সোমবার ফেসবুক নিউজ রুমে মিয়ানমারের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার কথা জানায় শীর্ষ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমটি।

ফেসবুক কর্তৃপক্ষ জানায়, স্পষ্ট প্রমাণ থাকায় মিয়ানমার সেনাবাহিনী সংশ্লিষ্ট ১৮টি অ্যাকাউন্ট, মোট ১ কোটি ২০ লাখ ফলোয়ার থাকা ৫২টি ফেসবুক পেজ এবং একটি ইন্সটাগ্রাম অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে দেয়া হয়েছে।

ফেসবুকের পক্ষ থেকে বলা হয়, মিয়ানমারে জাতিগত সংঘাত সত্যিই ভয়াবহ। আমরা এসব বন্ধে প্রথমে অত্যন্ত ধীর গতিতে এগিয়েছি। কিন্তু এখন আমাদের হাতে বানোয়াট তথ্য সনাক্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়ার সব পদ্ধতি আছে।

‘তাই আজ আমরা মিয়ানমারের বিরুদ্ধে আরও কঠোর পদক্ষেপ নিচ্ছি। সুনির্দিষ্টভাবে আমরা মিয়ানমারের ২০ জন ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানকে নিষিদ্ধ করছি। এসবের মধ্যে দেশটির সামরিক বাহিনীর প্রধান সিনিয়র জেনারেল মিন অং হ্লাই ও সেনাবাহিনীর মায়াওয়াদি টেলিভিশনও আছে।’

জাতিসংঘের মানবাধিকার সংস্থার প্রতিবেদনে প্রাপ্ত তথ্যের ভিত্তিতে মিয়ানমার সামরিক বাহিনীর বিরুদ্ধে এসব পদক্ষেপ নেয়ার কথা জানায় সামাজিক মাধ্যমটি। জাতিসংঘের ওই প্রতিবেদন থেকে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তি-সংস্থার বিরুদ্ধে চরম মানবাধিকার লঙ্ঘনের প্রমাণ পায় ফেসবুক।

 

নিউজ ডেস্ক / বিজয় টিভি

You might also like