বাংলাদেশের সঙ্গে বিকল্প জ্বালানি নিয়ে কাজ করতে আগ্রহী যুক্তরাজ্য

বাংলাদেশের সঙ্গে বিকল্প জ্বালানি নিয়ে কাজ করার আগ্রহ প্রকাশ করেছে যুক্তরাজ্য। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সাক্ষাৎকালে দেশটির দক্ষিণ এশিয়া ও কমনওয়েলথ বিষয়ক মন্ত্রী লর্ড তারিক আহমেদ এ আগ্রহের কথা প্রকাশ করেন।

বুধবার (১৭ নভেম্বর) সন্ধ্যায় প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসা গণভবনে এই বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম সাংবাদিকদের এ তথ্য জানিয়েছেন।

এ বিষয়ে ইহসানুল করিম জানান, বৈঠকে তাদের মধ্যে জলবায়ু, বাংলাদেশ-যুক্তরাজ্য বাণিজ্য এবং রোহিঙ্গা ইস্যু নিয়েও আলোচনা হয়।

যুক্তরাজ্যের মন্ত্রী তারিক আহমেদ সবুজ জ্বালানির ওপর গুরুত্বারোপ করে বলেন, নেপাল ও ভুটানের জলবিদ্যুতসহ এ অঞ্চলে সবুজ জ্বালানির বিপুল সম্ভাবনা রয়েছে। আঞ্চলিক গ্রিড প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে জলবিদ্যুত বিতরণ করা যেতে পারে।

জবাবে শেখ হাসিনা বলেন, ‘আমরা এ ব্যাপারে কাজ করে যাচ্ছি।’তারিক আহমেদ সোলার এনার্জির ওপর গুরুত্বারোপ করলে প্রধানমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ এ পর্যন্ত ৬ দশমিক ৫ বিলিয়ন সোলার সংযোগ দিয়েছে।

রোহিঙ্গা ইস্যু প্রসঙ্গে যুক্তরাজ্যের মন্ত্রী বলেন, তারা চান রোহিঙ্গারা বাংলাদেশ থেকে তাদের স্বদেশে ফিরে যাক। তিনি কক্সবাজারে রোহিঙ্গা শরণার্থীদের সঙ্গে তার বৈঠকের কথা উল্লেখ করে বলেন, তারা বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী এবং বর্তমান সরকারের ভূয়সী প্রশংসা করেছেন।

তারিক আহমেদ আরও বলেন, রোহিঙ্গারা তাদের ক্যাম্পে গোলযোগের জন্য তাদের লোককে দায়ী করেছেন। তিনি তাদের উদ্ধৃতি দিয়ে বলেন, ‘ক্যাম্পে গোলযোগের জন্য কোন বাংলাদেশী দায়ী নন।