বিশ্ব সুন্দরী খেতাব পেয়েও জায়গা করতে পারেননি বলিউডে

ভারতে আন্তর্জাতিক সৌন্দর্য প্রতিযোগিতায় যারাই প্রথম হন তাদের অধিকাংশই বলিউডে বেশ ভালো জনপ্রিয়তা পান। যেমন ঐশ্বরিয়া রাই, প্রিয়াঙ্কা চোপড়া, সুস্মিতা সেন। তারা সবাই ই বলিউডে নিজ নিজ প্রতিভায় পরিচিত।

কিন্তু কয়েকজন বলিউডে সেই জায়গাটি তৈরি করতে পারেন না। তাদেরই একজন যুক্তা মুখী। ব্যাংলোরে জন্ম নেয়া যুক্তার ছোটবেলা থেকেই ঝোঁক ছিল মডেলিং এ। এজন্যই প্রানিবিজ্ঞান এবং কম্পিউটার সায়েন্স নিয়ে পড়াশোনা করেও তিনি অংশগ্রহণ করেছিলেন ১৯৯৯ সালের মিস ওয়ার্ল্ড প্রতিযোগিতায়।

৯৩ জন প্রতিযোগীকে পেছনে ফেলে ছিনিয়ে নিয়েছিলেন বিজয়ির মুকুট। চতুর্থ ভারতীয় হিসেবে তিনি এই খেতাব জয় করেন। এর আগে এই খেতাব জিতেছিলেন রিতা ফারিয়া,ঐশ্বরিয়া রাই এবং ডায়ানা হেডেন।

মডেলিং থেকে ছবির জগতে যুক্তার আত্মপ্রকাশ ২০০১ সালে। তামিল ছবি ‘পুভেল্লাম উস ভাসম’-এ তাঁকে দেখা যায় ‘যুক্তা মুখী-র ভূমিকাতেই। ২০০২ সালে যুক্তা অভিনয় করেছিলেন ‘প্যায়াসা’ ছবিতে। বক্স অফিসে মুখ থুবড়ে পড়ে যুক্তার প্রথম হিন্দি ছবি।

এর পর বলিউডে আরও কিছু ছবিতে অভিনয় করেছিলেন যুক্তা। সেগুলির মধ্যে উল্লেখযোগ্য হল ‘লভ ইন জাপান’, ‘মেমসাব’ এবং ‘গুড নিউজ। কিন্তু কোনটাতেই তিনি ঠিক সেভাবে জনপ্রিয়তা অর্জন করতে পারেন নি।

কিছু বছর বিরতি নিয়ে ২০১৯-এ আবার ইন্ডাস্ট্রিতে ফিরে আসেন। অভিনয় করেন ‘গুড নিউজ’ ছবিতে। কিন্তু অভিনেত্রী হিসেবে জনপ্রিয়তা অধরাই থেকে যায়।

২০০৮ সালে তিনি বিয়ে করেছিলেন নিউ ইয়র্কের শিল্পপতি প্রিন্স টালির সঙ্গে। কিন্তু ক্যারিয়ারের মত তার বৈবাহিক জীবনেও সাফল্য আসেনি। ২০১৪ সালে বিবাহ বিচ্ছেদ হয় তার। এখন আর অভিনয় না করলেও তার সময় কাটে সমাজসেবা মূলক বিভিন্ন কাজে।

নিউজ ডেস্ক/বিজয় টিভি