বিসিবি প্রেসিডেন্টস কাপে সেরা খেলোয়াড় মুশফিক

২৭

বিসিবি প্রেসিডেন্টস কাপের সেরা খেলোয়াড় হয়েছেন নাজমুল একাদশের মুশফিকুর রহিম। টুর্র্নামেন্টের প্রথম ম্যাচে ব্যাট হাতে মাত্র ১ রান করেন তিনি। ফলে তার ফর্ম নিয়ে প্রশ্ন উঠে। তবে দারুনভাবে ফর্মে ফিরে টুর্নামেন্টের সেরা খেলোয়াড় হয়েছেন মুশফিক।

বিসিবি প্রেসিডেন্টস কাপের আগে নিজেদের মধ্যে দু’টি দু’দিনের প্রস্তুতিমূলক ম্যাচে ৩ ও ১১ রান করেন মুশফিক। এরপর এই টুর্নামেন্টের প্রথম ম্যাচেও ব্যাট হাতে ব্যর্থ হন তিনি। পেস বোলারদের বিপক্ষে তার দুর্বলতা ফুটে উঠে।

তবে পরের তিন ম্যাচে বড় ইনিংস খেলেছেন মুশফিক। ১টি সেঞ্চুরি ও দু’টি হাফ-সেঞ্চুরি করেন তিনি। তবে ফাইনালে ১২ রানের বেশি করতে পারেননি মুশফিক। টুর্নামেন্টে তার মোট রান ২১৯। এতে টুর্নামেন্টের সেরা খেলোয়াড় নির্বাচিত হন এই ডান-হাতি ব্যাটসম্যান।

টুর্নামেন্টে মোট ২১৫ রান করেন নাজমুল একাদশের ইরফান শুক্কুর। ফাইনালে ৭৫ রানের ইনিংস খেলেছেন তিনি। ফাইনাল ও টুর্নামেন্টের সেরা ব্যাটসম্যানের খেতাব পান শুক্কুর।

বল হাতে টুর্নামেন্টে ১২ উইকেট নিয়েছেন মাহমুদুল্লাহ একাদশের রুবেল হোসেন। ফলে টুর্নামেন্টের সেরা বোলার হন তিনি। ফাইনালের সেরা বোলার হয়েছেন মাহমুদুুল্লাহ একাদশের সুমন খান। ৩৮ রানে ৫ উইকেট নেন তিনি। সুমন ফাইনালের সেরা খেলোয়াড়ের পুরস্কার পান।

কামব্যাক প্লেয়ার অফ দ্য টুর্নামেন্ট হয়েছেন তাসকিন আহমেদ। প্রমিজিং প্লেয়ার অব দ্য টুর্নামেন্ট হয়েছেন তরুণ লেগ স্পিনার রিশাদ হোসেন। সেরা ফিল্ডার হয়েছেন নুরুল হাসান।

পাঁচ ক্রিকেটারকে বিশেষ পুরস্কার দেয়া হয়েছে। এরা হলেন- সাইফুদ্দিন, মেহেদি হাসান, সুমন, আফিফ হোসেন ও তৌহিদ হৃদয়কে।
ফাইনালের সেরা ব্যাটসম্যান – ইরফান শুক্কুর।
ফাইনালের সেরা বোলার – সুমন খান।
ফাইনালের সেরা ফিল্ডার – নুরুল হাসান।
ম্যাচ সেরা – সুমন খান।
টুর্নামেন্টের সেরা খেলোয়াড় – মুশফিকুর রহিম।
টুর্নামেন্টের সেরা ব্যাটসম্যান – ইরফান শুক্কুর।
টুর্নামেন্টের সেরা বোলার – রুবেল হোসেন।
টুর্নামেন্টের সেরা ফিল্ডার – নুরুল হাসান সোহান।
কামব্যাক প্লেয়ার অফ দ্য টুর্নামেন্ট – তাসকিন আহমেদ।
প্রমিজিং প্লেয়ার অব দ্য টুর্নামেন্ট – রিশাদ হোসেন।
প্রেসিডেন্টস স্পেশাল অ্যাওয়ার্ড – সাইফুদ্দিন, মেহেদি হাসান, সুমন, আফিফ হোসেন ও তৌহিদ হৃদয়। (বাসস)

নিউজ ডেস্ক/বিজয় টিভি

You might also like