বেনাপোলে ব্যাতিক্রমী মানবতার দেয়াল সাড়া ফেলেছে-তারুন্য-১৮

বেনপোল সীমান্তে ব্যাতিক্রমী মানবতার দেয়াল নির্মান করে সাড়া ফেলেছে তারুন্য-১৮র ১৮ শিক্ষার্থী। প্রচন্ড শৈতপ্রবাহে যখন কাপছে দেশ দুর্ভোগে এলাকার ছিন্নমূলের মানুষ, এসময়ে যশোর বেনপোল মহাসড়কের পাশেই জনসম্মুখে উন্মুক্ত স্থানে দেয়ালে লেখা হয়েছে মানবতার দেয়াল।

এক পাশে লেখা হয়েছে এখানে আপনার অপ্রয়োজনীয় জিনিস রেখে যান। আর এক পাশে লেখা হয়েছে আপনার প্রয়োজনীয় জিনিস নিয়ে যান। বাসাবাড়ীতে বা ব্যাবস্যা প্রতিষ্টানে থাকা পুরানো ও অপ্রয়োজনীয় শত শত বস্ত্র ও আসবাপত্র স্বেচ্ছায় মানবতার দেয়ালে রেখে যাচ্ছেন স্থানীয়রা। এসব বস্ত্র মনের আনন্দে নিয়ে যাচ্ছে পথচারিসহ বিভিন্ন শ্রেনী পেশার মানুষেরা।

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়–য়া শিক্ষার্থী বেনাপোল বড় আচড়া গ্রামের রোমিও হাসান হিরোর আহ্বানে তারুন্য ১৮ উদ্যোগে সমমনা ১৮জনকে নিয়ে গঠন করা হয় মানবতার দেয়াল তারুন্য ১৮ কমিটি।

স্বেচ্ছায় আসছে শত শত প্রয়োজনীয়-অপ্রয়জোনীয় জিনিসপত্র-পাচ্ছেন ছিন্নমুলের মানুষেরা।

বিভিন্ন এলাকা থেকে সংগ্রহ করা হচ্ছে সদস্য। প্রচারনা সংগ্রহ ও বিতরন করা হচ্ছে প্রয়োজনীয়-অপ্রয়োজনীয় জিনিস পত্র।

বেনাপোল রিপোটার্স মাল্টিপারপার্স সমিতি ও জিওসি সমবায় সমিতির সহযোগিতায় বেনাপোল বাজার-বন্দর এলাকা ও সীমান্ত এলাকায় ৩টি স্পটে নির্মিত হয়েছে মানবতার দেয়াল। দেশ ব্যাপি ছড়িয়ে দিতে চান স্বেচ্ছাসেবী কর্মকান্ডটি।

তরুনদের এ মহতি উদ্যোগকে সাধুবাদ জানায় এলকাবাসী। মানবতার দেয়াল ছড়িয়ে দেওয়া প্রয়োজন।এ কর্মকান্ডে খুশি সহযোগিতা করতে চান এলাকাবাসী।

বেনাপোল মানবতার দেয়াল তারুন্য ১৮কমিটি সাধারন সম্পাদক-রোমিও হাসান হিরো বলেন, দেশে বৈরী আবহাওয়া বইছে-এজন্য মানবতার দেয়াল কাজে আসবে। কমবে ধনী গরিবের বৈষম্য-৩টি স্পটে মানবতার দেয়াল থেকে অসহায় মানুষেরা পাচ্ছে তাদের আসবাপত্রের সন্ধান। মানবতার এ উদ্যোগটি আলো হয়ে ছড়িয়ে পড়–ক দেশব্যাপি-জয় হোক তারুন্যের এ আশা নিয়েই এগিয়ে যেতে চান উদ্যোক্তরা।

 

নিউজ ডেস্ক / বিজয় টিভি