মামুনুলসহ ৩ জনের রাষ্ট্রদ্রোহের মামলার প্রতিবেদন ৩ ফেব্রুয়ারি

৫১

বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্যের বিরোধিতা ও ঔদ্ধত্যপূর্ণ বক্তব্য দেওয়ার অভিযোগে বাংলাদেশ খেলাফত মজলিসের নেতা মামুনুল হক, বাবুনগরী ও সৈয়দ ফয়জুল করীমের বিরুদ্ধে করা রাষ্ট্রদ্রোহের মামলার তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের জন্য আগামী ৩রা ফেব্রুয়ারি দিন ধার্য করেছে আদালত।

বৃহস্পতিবার (৭ জানুয়ারি) প্রতিবেদন দাখিল না করায় আগামী ৩ ফেব্রুয়ারি নতুন দিন ধার্য করেছেন আদালত। ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট বাকী বিল্লাহ প্রতিবেদন দাখিলের জন্য এ দিন ধার্য করেন।

এর আগে, ৭ ডিসেম্বর ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিম সত্যব্রত শিকদারের আদালতে এ মামলাটি করেন মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের কেন্দ্রীয় সভাপতি আমিনুল ইসলাম বুলবুল।

মামলার আসামি মামুনুল হক গত ১৩ নভেম্বর রাজধানীর তোপখানা রোডের বিএমএ ভবনের মিলনায়তনে বলেন, যারা বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্যের নামে মূর্তি স্থাপন করে তারা বঙ্গবন্ধুর সুসন্তান হতে পারে না।

একই দিন আসামি সৈয়দ ফয়জুল করীম বলেন, শেখ সাহেবের এই মূর্তি আজ হোক কাল হোক বুড়িগঙ্গায় নিক্ষেপ করা হবে। অন্যদিকে, বাবুনগরী হাটহাজারীতে বলেন, মদিনা সনদে যদি দেশ চলে তাহলে কোনো ভাস্কর্য থাকতে পারে না।