মালদ্বীপকে বাংলাদেশের উন্নয়ন সহযোগী হওয়ার আহ্বান মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর

মালদ্বীপের জাতীয় সংসদে দেওয়া ভাষণে দেশটির সরকারি ও বেসরকারি খাতকে পারস্পরিক সুবিধার জন্য বাংলাদেশের উন্নয়ন অংশীদার হওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, কোনো দেশ একা উন্নতি করতে পারে না। আমি আশা করি আমাদের উষ্ণ ও বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক আরও সুসংহত হবে। বাংলাদেশ সম্ভাবনা ও সমৃদ্ধি নিয়ে এগিয়ে চলেছে। আমি মালদ্বীপের সরকারি ও বেসরকারি উভয় ক্ষেত্রে পারস্পরিক সুবিধার জন্য আগামী ৫০ বছরে উন্নয়ন যাত্রায় আমাদের অংশীদার হওয়ার আহ্বান জানাই।

মালদ্বীপের প্রেসিডেন্ট ইবরাহিম মোহাম্মদ সলিহ’র আমন্ত্রণে প্রথম দ্বিপাক্ষিক সফরের দ্বিতীয় দিন বৃহস্পতিবার (২৩ ডিসেম্বর) প্রধানমন্ত্রী দেশটির সংসদে ভাষণ দেন।

কোনো দেশ বিচ্ছিন্নভাবে উন্নতি করতে পারে না উল্লেখ করে ভাষণে প্রধানমন্ত্রী বলেন, কোভিড-১৯ মহামারি সবাইকে শিখিয়েছে— পরস্পর নির্ভরশীল এবং একটি উন্নত, নিরাপদ ও সমৃদ্ধ বিশ্বের স্বার্থে সবাইকে অভিজ্ঞতা ভাগাভাগি করতে হবে। আমরা দক্ষিণ এশিয়ায় আমাদের ভ্রাতৃপ্রতিম প্রতিবেশীদের সঙ্গে সহযোগিতার নীতিগত অবস্থান পুনর্ব্যক্ত করছি, যেমনটি আমাদের জাতির পিতা বলে গেছেন।

মালদ্বীপের জাতীয় সংসদ ‘পিপলস মজলিস’-এ স্পিকার মোহাম্মদ নাশিদ ও ডেপুটি স্পিকার স্বাগত জানান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে। প্রধানমন্ত্রী পরে দর্শনার্থী বইয়ে সই করেন এবং মালদ্বীপের সংসদের স্পিকারের সঙ্গে বৈঠক করেন।