মিয়ানমারের সাথে বাংলাদেশের বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক রয়েছে : সেনাপ্রধান

৭০

বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর প্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদ বলেছেন, মিয়ানমারের সাথে বাংলাদেশের বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক রয়েছে। তাদের সাথে প্রতিনিয়ত যোগাযোগ রয়েছে, এ মুহূর্তে সীমান্ত এলাকায় কোনো শঙ্কা নেই।

আজ রোববার দুপুরে, চাঁদপুরের মতলব উত্তর উপজেলার দক্ষিণ টরকী এলাকায় ‘আব্দুল ওয়াদুদ সরকার ১০ শয্যাবিশিষ্ট মা ও শিশু কল্যাণ হাসপাতালে’র উদ্বোধন শেষে তিনি এসব কথা বলেন।

সেনাপ্রধান বলেন, রোহিঙ্গাদের বিষয়টি রাজনৈতিক। এ ব্যাপারে সরকার অত্যন্ত দক্ষতার সাথে কাজ করছে, আগামী দিনেও করবে বলে মন্তব্য করেন তিনি।

সেনা প্রধান বলেন, আমি একাধিকবার মিয়ানমার ভিজিটে গিয়েছি। সেসময় মিয়ানমারের সেনা প্রধান ছাড়াও তাদের নৌ ও বিমান বাহিনী প্রধানরা সেই দ্বিপাক্ষীক মিটিং এ ছিলেন। তখন আমাকে আশ্বাস দিয়েছে যে, তাদের সীমান্তবর্তী এলাকায় তাদের অভ্যন্তরীন সমস্যা থাকায় তারা অভিযান চালাচ্ছে। যার কারণে তাদের সীমান্তে মাঝে মাঝে জনবল বৃদ্ধি করছে। এতে করে তাদের সাথে যে বাংলাদেশের বন্ধুপ্রতিম সম্পর্ক রয়েছে, এই বিষয়টা যেন অন্যভাবে চিন্তা না করার জন্য অনুরোধ জানানো হয়।

জেনারেল আজিজ বলেন, আমাদের সাথে মিয়ানমারের সেনা প্রধানের যোগাযোগ আছে। যখনই কোন কিছু হয়, তা যোগাযোগের মাধ্যমে সমাধান করে থাকি। এই মুহূর্তে তেমন কিছু হওয়ার মত পরিস্থিতি নেই।

এক প্রশ্নের জবাবে সেনা প্রধান বলেন, রোহিঙ্গাদের বিষয়টি রাজনৈতিক। এ ব্যাপারে আমাদের সরকার অত্যন্ত দক্ষতার সাথে কাজ করছে, আগামী দিনেও করবে বলে মন্তব্য করেন তিনি।

সেনাপ্রধানের পিতার নামে নির্মিত আব্দুল ওয়াদুদ সরকার ১০ শয্যাবিশিষ্ট মা ও শিশু কল্যাণ হাসপাতাল নির্মাণে ব্যয় হয়েছে ৪ কোটি ৬৯ লাখ টাকা।

অনুষ্ঠানে চাঁদপুর-২ আসনের সংসদ সদস্য অ্যাড. নূরুল আমিন রুহুল, চাঁদপুরের জেলা প্রশাসক অঞ্জনা খান মজলিশ, চাঁদপুরের পুলিশ সুপার মাহবুবুর রহমানসহ সেনাবাহিনীর উচ্চ পদস্থ কর্মকর্তাসহ বিভিন্ন বিভাগের কর্মকর্তা, জনপ্রতিনিধি, রাজনীতিবিদ উপস্থিত ছিলেন।

You might also like