মুক্তিযোদ্ধার খসড়া তালিকা ফেব্রুয়ারিতে : মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী

৮৩

মুক্তিযোদ্ধাদের খসড়া তালিকা আগামী ফেব্রুয়ারির প্রথম সপ্তাহে প্রকাশ করা হবে বলে জানিয়েছেন মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক। একইসঙ্গে মুক্তিযোদ্ধাদের সহযোগীদের তালিকা করার কথাও সরকার চিন্তা-ভাবনা করছে বলেও জানান মন্ত্রী।

সোমবার (১৮ জানুয়ারি) মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের ‘সেবা সপ্তাহ-২০২১’ এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে মন্ত্রী এ কথা জানান। মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সামনের সড়কে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

মন্ত্রী জানান, মুক্তিযোদ্ধার সংখ্যা দুই লাখের মধ্যে থাকবে। এরমধ্যে সাধারণ মুক্তিযোদ্ধার সংখ্যা এক লাখ ৭৫ হাজারের বেশি হবে না। তাদের চূড়ান্ত তালিকা আগামী স্বাধীনতা দিবসে প্রকাশ করা হবে।

তিনি বলেন, ‘আগামী ২৬ মার্চ মুক্তিযোদ্ধাদের তালিকা চূড়ান্ত করা হবে। যাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ নিষ্পত্তি হয়নি সেগুলো চলমান থাকবে। কিন্তু যেসব মুক্তিযোদ্ধাদের নাম বা স্বীকৃতি শতভাগ নিশ্চিত হওয়া গেছে, মহান স্বাধীনতা দিবসে সেটা (চূড়ান্ত তালিকা) প্রকাশ করব।’

মোজাম্মেল হক বলেন, ‘৩৪ হাজার মুক্তিযোদ্ধা, যাদের গেজেট আছে। তাদের নিয়মিত করার জন্য আগামী ৩০ জানুয়ারি উপজেলায় তাদের গেজেট যাচাই হবে। আমরা অপেক্ষা করছি হয়তো এক লাখ ৭০ হাজারের মধ্যেই এটা (মুক্তিযোদ্ধার সংখ্যা) সীমিত থাকবে।’

মন্ত্রী আরও বলেন, একই সঙ্গে ৩০ লাখ মানুষ শহীদ হয়েছে, এরমধ্যে অনেকে আছেন বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ বা অন্যান্যভাবে সেইসব তালিকা পূর্ণতা দেয়া যায় কিনা। একইভাবে আমরা সংসদে রাজাকারের তালিকা করার জন্য আইন করার চেষ্টা করছি। মুক্তিযোদ্ধার তালিকা চূড়ান্ত করার পর আমরা এ ব্যাপারে কাজ শুরু করব। আইনানুগভাবে ও নীতিমালা তৈরি করে সেটা পূর্ণাঙ্গ করা হবে।

You might also like