মুজিবনগর-কলকাতা স্বাধীনতা সড়কের কাজ শিগগিরই

৬২

মুজিবনগর-কলকাতা স্বাধীনতা সড়কের কাজ শিগগিরই শুরু হবে বলে জানিয়েছেন স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায়মন্ত্রী তাজুল ইসলাম।

তিনি বলেছেন, মুজিবনগরের আম্রকানন আমাদের জাতিগতভাবে একটি স্মৃতির জায়গা। এখানকার স্মৃতি যেমনি সংরক্ষণ করা দরকার, তেমনি এই রাস্তা দিয়ে আমাদের প্রথম সরকারের মন্ত্রিপরিষদ সদস্যবৃন্দ এসেছিলেন যা স্মৃতি হয়ে আছে। তাই স্বাভাবিকভাবেই এই রাস্তাটি আমাদের কাছে গুরুত্বপূর্ণ।

বৃহস্পতিবার (১৪ জানুয়ারি) সকালে মেহেরপুরের মুজিবনগরে ঐতিহাসিক স্বাধীনতা সড়ক পরিদর্শনকালে তিনি এসব কথা বলেন।

১৯৭১ সালের ১৭ এপ্রিল এ সড়ক দিয়ে বাংলাদেশের প্রথম সরকারের মন্ত্রিপরিষদ সদস্যবৃন্দ ভারত থেকে মুজিবনগরে এসে শপথ গ্রহণ করেছিলেন। মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতি সংরক্ষণে স্বাধীনতা সড়কটি আগামী মার্চে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি উদ্বোধন করার কথা রয়েছে। এরমধ্য দিয়ে মুজিবনগরের সাথে কলকাতার সড়কে যাতায়াত শুরু হবে।

রাস্তাটি মানসম্মতভাবেই উন্নয়ন করতে অচিরেই কাজ শুরু হবে উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, পঁচাত্তরে বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পরেই হত্যাকারীরা স্বাধীনতার অনেক স্মৃতি বিজড়িত স্থানকে সমর্থন করেন নাই। তেমনিভাবে এটাও অবহেলিত ছিল। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ক্ষমতায় আসার পর বীর মুক্তিযোদ্ধাদের যেমনিভাবে সম্মান করা হচ্ছে তেমনিভাবে যুদ্ধকালীন স্মৃতি বিজড়িত স্থানগুলোকেও সংরক্ষণ করা হচ্ছে।

যোগাযোগ ব্যবস্থা উন্নয়নের পূর্বশর্ত উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, রাস্তাটি হলে এখান দিয়ে দুদেশের মানুষ যাতায়ত করতে পারবেন। রাস্তাটি হলে ব্যবসা-বাণিজ্যসহ সার্বিক বিষয়ের উন্নয়ন হবে। অপরদিকে মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতিও সংরক্ষণ হবে।

You might also like