মোগাদিশুতে ভয়াবহ গাড়ি বোমা হামলায় নিহত ৭৯

৭৮

মোগাদিশুতে ভয়াবহ গাড়ি বোমা হামলায় নিহত হয়েছে অন্তত ৭৯ জন। আহত হয়েছে প্রায় শতাধিক। বিগত দুই বছরের মধ্যে এটি ছিল সেখানে সবচেয়ে ভয়াবহ হামলা।

নিহতদের মধ্যে ১৬জন ছিল রাজধানীর বেসরকারি বনাদির বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী। তারা বোমা বিষ্ফোরণের সময় রাজধানীর দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের ওই এলাকাটি বাসযোগে অতিক্রম করছিল।

ঘটনাস্থল থেকে আহতদের স্ট্রেচারে করে অন্যত্র নেয়া হয়।

তুরস্কের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মেভলুত কাভুসোগলু টুইটারে জানান, এ ঘটনায় দুই তুর্কি নাগরিকও নিহত হয়েছে।

নিরাপত্তা চৌকি ও কর অফিস থাকায় বাস ও ট্রাকসমূহ থেকে ফি সংগ্রহ করায় ট্রাফিক সেখানে যানবাহনের গতিরোধ করছিল।

কেউ এ হামলার দায়িত্ব স্বীকার করেনি। তবে মোগাদিশুতে প্রায়ই ইসলামী আলকায়দা সংশ্লিষ্ট আল-শাবাব গাড়ি বোমা বিষ্ফোরণ ও বিভিন্ন হামলা চালিয়ে থাকে।

সোমালি পুলিশ প্রধান আব্দি হাসান মোহাম্মাদ সাংবাদিকদের বলেন, সেখানে ‘ভয়ঙ্কর’ পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে, হতাহতের সংখ্যা নিরূপণ দুঃসাধ্য।’

‘আমরা এ মুহূর্তে ৭৯ জন নিহত এবং শতাধিক আহত হয়েছে বলে জানতে পেরেছি। বহুসংখ্যক আহত হওয়ায় তাদের মধ্যে এক দুই জনের মৃত্যুর আশঙ্কা করা হচ্ছে।’

ইতোপূর্বে বেসরকারি আমিন অ্যাম্বুলেন্স সার্ভিসের পরিচালক আব্দুকাদির আব্দিরহমান হাজি এএফপিকে জানায়, প্রায় ১২৫ জন আহত হয়েছে।

এ দুর্ঘটনার পর বনাদির বিশ্ববিদ্যালয় ৫ দিনের জন্য বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।

প্রেসিডেন্ট মোহামেদ আব্দুল্লাহি ফরমাজো সোমালি ন্যাশনাল নিউজ এজেন্সি (এসওএনএনএ)-কে এ ঘটনা সম্পর্কে তার নিন্দা জানান।

অনলাইন নিউজ ডেস্ক/বিজয় টিভি