রিভিউ খারিজ: জাহাঙ্গীরের মৃত্যুদন্ড বহাল

নোয়াখালীর সুধারামের গোপীনাথপুর গ্রামের ৯ বছরের শিশু আরাফাত হোসেনকে হত্যা মামলায় আসামি মো. জাহাঙ্গীরের মৃত্যুদন্ডাদেশের রায় পুর্নবিবেচনা (রিভিউ) চেয়ে আনা আবেদন খারিজ করে দিয়েছেন সুপ্রিমকোর্টের আপিল বিভাগ।

বৃহস্পতিবার (২১ অক্টোবর) প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বে আপিল বিভাগ এ আদেশ দেন।

আদালতে আসামিপক্ষে ছিলেন আইনজীবী জয়নুল আবেদিন ও আইনজীবী এবিএম বায়েজীদ। রাষ্ট্রপক্ষে ডেপুটি এটর্নি জেনারেল বিশ্বজিৎ দেবনাথ।

গত ৮ জুলাই তার মৃত্যুদন্ড বহাল রেখে রায় দেন আপিল বিভাগ। এ রায় পুর্নবিবেচনা (রিভিউ) চেয়ে আবেদন করেন আসামি জাহাঙ্গীর।

মামলার নথি থেকে জানা গেছে, ২০০৭ সালের ১৩ মার্চ সন্ধ্যার পর গোপীনাথপুর গ্রামের শিশু এবং মাইজদী নুরানী হাফেজিয়া মাদ্রাসার ছাত্র আরাফাত হোসেনকে (৯) বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে কুপিয়ে হত্যার পর পাশের কবরস্থানে ফেলে রাখে জাহাঙ্গীর। নৃশংস ওই ঘটনায় আরাফাতের বাবা বাবুল খান বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেন। আসামি জাহাঙ্গীর হত্যার দায় স্বীকার করে আদালতে ফৌজদারি কার্যবিধির ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দী দেয়। জবানবন্দীতে জাহাঙ্গীর শিশু আরাফাতের পিতার কাছে জমি বিক্রির টাকা নিয়ে বিরোধের জেরে এ হত্যা করেন বলে স্বীকার করেন।

এ মামলায় বিচার শেষে ২০০৮ সালের ২৮ জুলাই নোয়াখালী জেলা ও দায়রা জজ আদালত জাহাঙ্গীরকে মৃত্যুদন্ড দিয়ে রায় দেন।

নিয়ম অনুসারে মৃত্যুদন্ড অনুমোদনের জন্য হাইকোর্টে ডেথ রেফারেন্স পাঠানো হয়। পাশাপাশি আসামিও আপিল করে। ২০১৩ সালের ১৮ নভেম্বর জাহাঙ্গীরের মৃত্যুদন্ড বহাল রাখেন হাইকোর্ট। এর বিরুদ্ধে আপিল করে জাহাঙ্গীর। সেই আপিল ৮ জুলাই খারিজ করে দেন আপিল বিভাগ। আপিলের রায় রিভিউ চেয়ে আবেদন করেন আসামি। আজ রিভিউ খারিজ (ডিসমিসড) করে আদেশ দেন আপিল বিভাগ।

You might also like