রিমান্ড শেষে পিকে হালদারের সহযোগী অবন্তিকা কারাগারে

৫৬

পিকে হালদারের বিরুদ্ধে অবৈধ সম্পদ অর্জন ও অর্থ পাচার মামলায় তার ‘ঘনিষ্ঠ সহযোগী’ গ্রেফতার অবন্তিকা বড়ালকে দুদকের জিজ্ঞাসাবাদ শেষে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

সোমবার থেকে বুধবার (২৭ জানুয়ারি) তিন ধরে রাজধানীর সেগুনবাগিচায় দুর্নীতি দমন কমিশন-দুদক কার্যালয়ে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়।

এর আগে সোমবার (২৫ জানুয়ারি) রাজধানীর সেগুনবাগিচায় দুর্নীতি দমন কমিশন-দুদক কার্যালয়ে তাকে আনা হয়। তদন্ত কর্মকর্তা দুদকের উপপরিচালক মো. সালাউদ্দীনের তত্ত্বাবধানে তাকে কাশিমপুর কারাগার থেকে দুদক কার্যালয়ে নিয়ে আসা হয়।

এর আগে ঢাকা মহানগর সিনিয়র স্পেশাল জজ কে এম ইমরুল কায়েশ তাকে ৩ দিনের রিমান্ডে এনে জিজ্ঞাসাবাদের করার আদেশ দেন।

অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে বলা হয়, পিকে হালদারের ধানমন্ডির সাড়ে চার কোটি টাকার ফ্ল্যাটটি অবন্তিকা বড়ালের নামে পাওয়া গেছে। এছাড়া পি কে হালদারের নিয়ন্ত্রণাধীন সুখদা কোম্পানির শেয়ার হোল্ডারও তিনি। সুখদাসহ পারিবারিক বিভিন্ন কোম্পানির নামে পিকে হালদারের মা লীলাবতী হালদারের ব্যাংক হিসাবে যে ১৬৫ কোটি টাকার লেনদেন হয় এবং অর্থপাচার হয় সেখানেও অবন্তিকা বড়ালের সংশ্লিষ্টতার প্রমাণ পেয়েছে দুদক।

এদিকে, সোমবার প্রায় ৩৫১ কোটি টাকা ঋণ জালিয়াতির অভিযোগে পিকে হালদারসহ ৩৩ জনকে আসামি করে আরও ৫টি মামলা দায়ের করে দুদক।

You might also like