রূপপুর বালিশকাণ্ড: প্রকৌশলী আমিনুলের জামিন প্রশ্নে রুল

৫৩

পাবনার রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ প্রকল্পের বালিশ ও আসবাবপত্র কেনাকাটায় দুর্নীতির অভিযোগে গণপূর্ত বিভাগের সাময়িক বরখাস্ত হওয়া সহকারী প্রকৌশলী মো. আমিনুল ইসলামের বিরুদ্ধে করা পৃথক চার মামলায় তাকে কেনো জামিন দেয়া হবে, তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছেন আদালত।

মঙ্গলবার (২৬ জানুয়ারি) হাইকোর্টের বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি মহিউদ্দিন শামীমের সমন্বয়ে গঠিত ভার্চুয়াল বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

এ সময় দুদকের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী মো খুরশিদ আলম খান, রাষ্ট্রপক্ষে ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল এ কে এম আমিন উদ্দিন মানিক, সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল মাহজাবিন রাব্বানী দীপা ও আন্না খানম কলি। আসামিপক্ষে ছিলেন আইনজীবী মো. মোতাহার হোসেন সাজু।

এর আগে ২০১৯ সালের ১২ ডিসেম্বর পাবনার রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ প্রকল্পের একটি ভবনে অস্বাভাবিক মূল্যে আসবাবপত্র ও অন্যান্য সামগ্রী ক্রয়ে দুর্নীতির অভিযোগে মামলা করা হয়। টেন্ডার আহ্বানের আট মাস আগেই রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ প্রকল্পের অন্তত তিনটি ভবনের জন্য ইলেকট্রিক্যাল ও ইলেকট্রনিক্স আইটেম, ওয়াশিং মেশিন, ইলেকট্রিক্যাল আয়রন, বালিশ, তোশক ও আসবাবপত্র সরবরাহ করা হয়। পাশাপাশি প্রতিটির দাম বাজারের তুলনায় অস্বাভাবিক ধরা হয়। গত মে মাসে প্রকাশ্যে আসে সেই দুর্নীতি।

You might also like