শহীদ মিনারে ফকির আলমগীরের মরদেহ

সর্বস্তরের মানুষের শ্রদ্ধা জ্ঞাপনের জন্য প্রখ্যাত গণসংগীতশিল্পী ফকির আলমগীরের মরদেহ কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে নেয়া হয়েছে।

শনিবার (২৪ জুলাই) বেলা পৌনে ১২টার দিকে তার মরদেহ শহীদ মিনারে নেয়া হয়।

সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের ব্যবস্থাপনায় স্বাস্থ্যবিধি মেনে এখানে ফকির আলমগীরের নাগরিক শ্রদ্ধাঞ্জলি অনুষ্ঠিত হবে। বৃষ্টির কারণে শ্রদ্ধাঞ্জলি অনুষ্ঠান দেরিতে শুরু হচ্ছে।

এর আগে সকাল ১১টায় রাজধানীর খিলগাঁও পল্লীমা সংসদে ফকির আলমগীরের মরদেহ নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে তার প্রথম নামাজের জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। এ সময় ঢাকা জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে তাকে রাষ্ট্রীয় সম্মান গার্ড অব অনার প্রদান করা হয়েছে। কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে বাদ যোহর খিলগাঁও মাটির মসজিদে ফকির আলমগীরের দ্বিতীয় জানাজা হবে। পরে খিলগাঁও তালতলা কবরস্থানে তার দাফন সম্পন্ন হবে।

এর আগে করোনা আক্রান্ত হয়ে না মারা যান ফকির আলমগীর। রাত ১০টা ৫৬ মিনিটে তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৭১ বছর। তিনি স্ত্রী, তিন ছেলে রেখে গেছেন।

ফকির আলমগীর গণসংগীত পরিবেশন করে ৬৯-এর গণঅভ্যুত্থানে বিশেষ ভূমিকা পালন করেন। একাত্তরের শব্দসৈনিক হিসেবে স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রেও তিনি ছিলেন। শুধু তাই নয়, অস্ত্র হাতে শত্রুর বিরুদ্ধে সম্মুখযুদ্ধে লড়াইও করেছেন এই শিল্পী।

You might also like