সংশোধন হচ্ছে প্রেস কাউন্সিল আইন: তথ্যমন্ত্রী

৭৭

সংশোধন হচ্ছে প্রেস কাউন্সিল আইন, শিগগিরই উঠবে মন্ত্রিসভায়। এর ফলে প্রেস কাউন্সিলের ক্ষমতা ও কাজের পরিধি আরো বাড়বে বলে জানিয়েছেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ।

শনিবার (২৮ নভেম্বর) দুপুরে রাজধানীর কাকরাইলে তথ্য ভবন মিলনায়তনে সাংবাদিকদের প্রেস কাউন্সিল পদক প্রদান অনুষ্ঠান একথা জানান তিনি।

এসময় অনলাইন মিডিয়ার জন্য রেজিস্ট্রেশনের কাজ চলছে উল্লেখ করে তথ্যমন্ত্রী জানান হীন বা ব্যক্তি স্বার্থে পরিচালিত অনলাইন পোর্টালগুলো রেজিস্ট্রেশন পাবে না।

তিনি আরও জানান, ৪ হাজার সাংবাদিকদের করোনাকালীন সহায়াতা দেয়া হয়েছে।

বাংলাদেশ প্রেস কাউন্সিল পদক পেয়েছেন; দৈনিক সমকালের স্টাফ রিপোর্টার জাহিদুর রহমান, আমাদের সময়ের ইউসুফ আরেফিন, নারী সাংবাদিক আরাফাত আরা, আলকচিত্র সাংবাদিক শফিকুল ইসলাম। আজীবন সম্মাননা পেয়েছেন দৈনিক জনকন্ঠের উপদেষ্টা সম্পাদক জনাব তোয়াব খান।

তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ বলেন, ‘কেউ স্বীকার করুক বা না করুক, সকল প্রতিবন্ধকতা ও সীমাবদ্ধতাকে উপড়ে ফেলে বাংলাদেশ আজ এগিয়ে যাচ্ছে। মানবিক, সামাজিক, অর্থনৈতিক সকল সূচকে আমরা পাকিস্তানকে পেছনে ফেলেছি, অনেক সূচকে পাকিস্তানকেও পেছনে ফেলেছি। আইএমএফ, এশীয় উন্নয়ন ব্যাংকের সমীক্ষায় এর প্রতিফলনে ভারত ও পাকিস্তানে তোলপাড় হচ্ছে, অথচ আমাদের দেশে কেউ কেউ স্বীকার করতে চায় না। আমাদের রাজনৈতিক প্রতিপক্ষ রাজনৈতিকভাবে সরকারকে মোকাবিলা করতে ব্যর্থ হয়ে মৌলবাদকে উস্কে দেয়, ষড়যন্ত্র-গুজবের পথ বেছে নেয়। এদের বিরুদ্ধে সবাইকে সতর্ক থাকতে হবে।’

গণমাধ্যমের ভূমিকাকে আরো বিস্তৃত করার আহবান জানিয়ে উন্নত জাতি গঠনের জন্য বস্তুগত উন্নয়নের সাথে আত্মিক উন্নয়নকে অপরিহার্য বলে বর্ণনা করেন ড. হাছান। আর সেজন্য নতুন প্রজন্মের মনন গঠনে গণমাধ্যম সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে পারে, বলেন তিনি। 
 
তথ্য প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসান বলেন, স্বাধিকার, গণতন্ত্র ও উন্নয়ন একইসূত্রে গাঁথা। আর এই যোগসূত্র স্থাপনে গণমাধ্যম রাখতে পারে অনন্য ভূমিকা।

ডেস্ক নিউজ/বিজয় টিভি

You might also like