সাত নির্মাতার সাত স্বল্পদৈর্ঘ্য সিনেমা

৬১

করোনা কালীন সময়ে দেশের টেলিভিশনের আন্তঃসংগঠনগুলোর উপর পড়েছে প্রভাব। এবার শুটিং বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছে প্রোডিউসার অ্যাসোসিয়েশন (টেলিপ্যাব), ডিরেক্টরস গিল্ড, অভিনয় শিল্পী সংঘ ও নাট্যকার সংঘ

গত ১৬ মে শনিবার শুটিং চালুর ঘোষণা দেয়ার মাত্র ৩৬ ঘণ্টার মধ্যে তাদের সদস্যদের এ নোটিশ দিয়েছে প্রত্যেকটি সংগঠন। ১৭ মে রবিবার রাত ১২টার দিকে সংগঠনগুলোর ফেসবুক পেজ ও হোয়াটসঅ্যাপে এই বার্তা দেওয়া হয়।

সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকদের পাঠানো এই চিঠিতে বলা হয়, ‘টেলিভিশন মাধ্যমের সংশ্লিষ্ট সকলের অবগতির জন্য জানানো যাচ্ছে যে, যেহেতু বর্তমানে করোনা পরিস্থিতি আরও ভয়াবহ আকার ধারণ করছে; তাই আন্তঃসংগঠন তাদের স্ব স্ব সংগঠন সমূহের সদস্যদের সুচিন্তিত মতামত ও জোরালো দাবির প্রেক্ষিতে সাময়িক শিথিল অবস্থান থেকে সরে আসার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।’

বিবৃতিতে আরও উল্লেখ করা হয়, সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব সৈয়দ হাসান ইমাম, আবুল হায়াত ও অভিনেত্রী-সাংসদ সুবর্ণা মুস্তাফাসহ সংগঠনসমূহের উপদেষ্টামণ্ডলী শুটিং বন্ধের আহ্বান জানিয়েছেন।

এদিকে আসছে ঈদে দর্শকদের জন্য ঘরে বসেই সাতটি স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র বানিয়েছেন সাত নির্মাতা। এই প্রযোজনাগুলোকে একসাথে বলা হচ্ছে, ‘ঘরবন্দি সময়ের গল্প। আলফা-আই স্টুডিওর ব্যানারে নির্মিত এ কাজগুলো দেখানো হবে দীপ্ত টিভিতে।

নির্মাতাদের মধ্যে আছেন- গিয়াস উদ্দিন সেলিম, নুরুল আলম আতিক, অনিমেষ আইচ, শিহাব শাহীন, সুমন আনোয়ার, সাফায়েত মনসুর রানা ও গৌতম কৈরী। স্বল্পদৈর্ঘ্যগুলো প্রযোজনা করছেন শাহরিয়ার শাকিল।

‌‘কোয়ারেন্টিনের সকল বিধি মেনেই শিল্পীরা প্রত্যেকে যার যার বাসা থেকেই অভিনয় করেছেন। এক্ষেত্রে চিত্রগ্রহণের ব্যাপারে সহযোগিতা করেছেন শিল্পীর পরিবারের সদস্য, কখনোবা শিল্পী নিজেই। ইতোমধ্যে কয়েকটির শুটিং শেষ। ঈদের সাত দিন এগুলো দেখানো হবে।

অনলাইন নিউজ ডেস্ক/বিজয় টিভি

You might also like