সিরাজগঞ্জে স্কুলছাত্রী হত্যা মামলায় দুই জনের যাবজ্জীবন

সিরাজগঞ্জের কামারখন্দে স্কুল ছাত্রী সুরাইয়া খাতুন হত্যা মামলায় দুই জনকে যাবজ্জীবন কারাদন্ড দিয়েছে আদালত। একই সাথে ২০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরো ১ বছরের বিনাশ্রম কারাদন্ড প্রদান করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (২৬ অক্টোবর) দুপুরে সিরাজগঞ্জ জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক ফজলে খোদা মো: নাজির এই কারাদন্ড প্রদান করেন।

দন্ডপ্রাপ্তরা হলেন, কামারখন্দ উপজেলার কাজিপুরা গ্রামের শফিকুল ইসলাম স্বপন ও কুড়িগ্রাম জেলার নাগেশ্বরী থানার পশ্চিম রায়গঞ্জ গ্রামের আব্দুল করিম শেখের ছেলে মোতালেব হোসেন। মামলা হওয়ার পর থেকে মোতালেব পলাতক রয়েছে।

সিরাজগঞ্জ জেলা ও দায়রা জজ আদালতের স্টেনোগ্রফার রাশেদুল ইসলাম এতথ্য নিশ্চিত করেছেন।

মামলার এজাহারে উল্লেখ করা হয়েছে, আসামী মোতালেব হোসেন কামারখন্দ উপজেলার কাজিপুরা গ্রামের মেনহাজ উদ্দিনের বাড়িতে কামলার কাজ করতেন। এসময় স্কুল ছাত্রী সুরাইয়ার সাথে বাড়ির প্রতিবেশি শরিফুল ইসলামের ঝগড়াঝাটি হয়। এরই জেরে শরিফুলের ভাই শফিকুল ইসলাম সুরাইয়াকে হত্যার পরিকল্পনা করে। এই পরিকল্পনা অনুসারে মোতালেবকে হত্যার কাজে নিযুক্ত করা হয়। ২০০২ সালের ৬ জুলাই রাতে মোতালেব ও শফিকুল ইসলাম সুরাইয়ার ঘরের বাঁধন কেটে ধারালো ছুরি দিয়ে হত্যা করে। এসময় সুরাইয়ার চিৎকারে বড় বোন সম্পা খাতুন ঘুম থেকে জেগে উছে ঘরের বিদ্যুৎ বাতি জ্বালিয়ে দেখে ঘর থেকে মোতালেব বেরিয়ে যাচ্ছে।

এঘটনায় সুরাইয়ার বাবা মেনহাজ উদ্দিন বাদী হয়ে কামারখন্দ থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। মামলায় ১৭ জনের স্বাক্ষ্য গ্রহন শেষে আজ আদালত রায় প্রদান করে।