সু চির রিমান্ডের মেয়াদ বাড়লো

৭৩

সেনা অভ্যুত্থানে ক্ষমতাচ্যুত মিয়ানমারের নেত্রী অং সান সু চির বিরুদ্ধে করা বেশ কয়েকটি মামলার অভিযোগ এনে রিমান্ডের সময় বাড়ানো হয়েছে। রিমান্ডের মেয়াদ আজ ১৫ ফেব্রুযারি পর্যন্ত ছিলো কিন্তু বাড়িয়ে ১৭ ফেব্রুযারি পর্যন্ত করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন তার আইনজীবী।

আজ সোমবার মিয়ানমারের সাবেক স্টেট কাউন্সিলর ও ন্যাশনাল লিগ ফর ডেমোক্রেসির (এনএলডি) প্রধান সু চির আইনজীবীর বরাত দিয়ে এক প্রতিবেদনে এ তথ্য দিয়েছে রয়টার্স।

প্রতিবেদনে বলা হয়, সোমবার সু চির রিমান্ড শেষ হওয়ার কথা ছিল কিন্তু তার আইনজীবী খিন মুং জ গণমাধ্যমকে জানান, রাজধানী নেপিডোর একটি আদালতের একজন বিচারক জানিয়েছেন, তার রিমান্ডের মেয়াদ ১৭ তারিখ পর্যন্ত।

উল্লেখ্য, গত ১ ফেব্রুয়ারি ভোরে সু চি ও দেশটির প্রেসিডেন্টসহ বেশকিছু নেতাকে গ্রেপ্তার করে এক বছরের জন্য জরুরি অবস্থা জারি করে সেনাবাহিনী। এরপর তার বিরুদ্ধে আনা হয় কয়েকটি অভিযোগ। গত ৩ ফেব্রুয়ারি সু চির বিরুদ্ধে চার্জ গঠন করে মিয়ানমারের একটি আদালত। তার বিরুদ্ধে আমদানি ও রপ্তানি আইন লঙ্ঘনের অভিযোগে মামলা করা হয়েছে। ওই মামলায় তার ১৪ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেিছল আদালত।

পুলিশের দায়ের করা মামলায় বলা হয়েছে, রাজধানী নেপিদুতে সু চির বাড়িতে তল্লাশি চালানোর সময় ওয়াকিটকি রেডিও পাওয়া গেছে। এগুলো বিনা অনুমতিতে ও অবৈধভাবে আমদানি করা হয়েছে।