স্বাধীনতার ৪৯ বছরেও রাষ্ট্রীয় মর্যাদা পায়নি, হাতিয়ার গণহত্যায় নিহত ৬৯৭ গ্রামবাসী

১০৬

আজ কুড়িগ্রামের হাতিয়া গণহত্যা দিবস। এই দিনে পাক হানাদার বাহিনী হাতিয়া ইউনিয়নে ৬৯৭ গ্রামবাসীকে নির্মম ভাবে  হত্যা করে। স্বাধীনতার ৪৯ বছর পেরোলেও, পরিবারগুলো পায়নি রাষ্ট্রীয় মর্যাদা। পূণর্বাসনের প্রতিশ্রুতি পেলেও প্রকৃত বাস্তবায়নের দাবি স্থানীয়দের।

১৩ নভেম্বর ১৯৭১ সালের এই দিনে পাকিস্থানী হানাদার বাহিনী কুড়িগ্রাম জেলার উলিপুর উপজেলার হাতিয়া ইউনিয়নে নারকীয় তান্ডব চালিয়ে হত্যা করেছিল ৬৯৭ জন গ্রামবাসীকে। এ দিনেই ফজরের নামাজের আগে হঠাৎ করে চারদিক থেকে শুরু হয় বৃষ্টির মত গোলাবর্ষণ।

অনেকে সেদিনের নিষ্ঠুরতার কাহিনী স্মরণ করে এখনো আঁতকে ওঠেন। এ সমস্ত শহীদের পরিবারের লোকজন অযত্ন অবহেলায় এখন অর্ধাহারে অনাহারে ধুঁকে ধুঁকে জীবন কাটাচ্ছে। স্বাধীনতার ৪৯ বছর পরেও তাদের ভাগ্যের পরিবর্তন হয়নি।

নিহত পরিবারদেরকে রাষ্ট্রীয় সম্মান ও হাতিয়া দিবসকে জাতীয় পর্যায়ে স্বীকৃতির দাবি এই জন প্রতিনিধির।

দিবসটি উপলক্ষে মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ও সাধারণ মানুষ হাতিয়া বাজারমোড়ে অবস্থিত শহীদদের স্মৃতিস্তম্ভে পুস্পস্তবক অর্পন, মিলাদ মাহফিল, শোক র‌্যালি ও  আলোচনা সভার  আয়োজন করে।

নিউজ ডেস্ক/বিজয় টিভি

You might also like